নোতুন খবর.কম : বগুড়া শিবগঞ্জের মহাস্থান গড় এলাকার মোঃ শাহ আলম ও তার স্ত্রী মোছাঃ তুহিন বেগম আর কখনও মাদক ব্যবসা না করার অঙ্গিকার করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে বগুড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মোছাঃ তুহিন বেগম এই অঙ্গিকারের কথা ঘোষনা করেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, কিছু দুষ্ট লোকের প্ররোচনায় আমার স্বামী ফেন্সিডিল বিক্রকে পেশা হিসাবে গ্রহণ করে। যার প্রেক্ষিতে সমাজে ফেন্সিডিল বিক্রতা হিসাবে পরিচিতি লাভ করে। গত প্রায় ২১ মাস পলাতক থাকার পর আমার স্বামী গত ১৬ই ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে শিবগঞ্জ থানায় আত্মসমর্পণ করে এবং বর্তমানে বগুড়া জেল হাজতে আটক রয়েছে। আমাদের বর্তমানে ১ ছেলে ও ৪ মেয়ে রয়েছে তার ২টি বিবাহযোগ্য কন্যা রয়েছে। বর্তমানে আমাদের পরিবার আমার স্বামীর আয়ের উপর সম্পূর্ণ নির্ভরশীল। আমি এবং আমার পরিবার বর্তমানে আমার স্বামীর
অভাবে খুবই মানবেতর জীবন যাপন করছি।
আমি এই মর্মে আমার স্বামী এবং আমার পক্ষ থেকে অঙ্গীকার করিতেছি যে, আমার স্বামী এবং আমার পরিবার জীবনে আর কখন ও মাদক ব্যবসা করবো না, মাদক স্পর্শ করবো না। যদি করি তাহলে প্রশাসন যে পদক্ষেপ নিবে তা মেনে নিতে বাধ্য থাকব। আমার স্বামী সহ আমাকে আমাদের নাবালক কন্যা, অবুঝ শিশুর স্বার্থে মানবিক কারণে আমাদের অপরাধ ক্ষমা করে স্বাভাবিক জীবন যাপনের সুযোগ দান করবেন এবং আমার স্বামী জেল হাজত হতে জামিন প্রাপ্ত হবার পর আর যেন নতুন কোন মামলায় গ্রেফতার না দেখানো হয় সেজন্য সহযোগিতা কামনা করছি।