ডেস্ক : ইতালিতে অবৈধপথে বাংলাদেশি শ্রমিকদের যাওয়া ঠেকাতে উভয়দেশ একমত হয়েছে। একইসঙ্গে বৈধপথে বাংলাদেশ থেকে আরও বেশি দক্ষ কর্মী নেয়ার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে দেশটি। এ ব্যাপারে সম্ভাব্য কাঠামো কিভাবে তৈরি করা যায় তা নিয়েও উয়ভদেশের আলোচনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ইতালির প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ কোঁতের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে আলোচনা হয়। গতকাল বুধবার রোমে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। মানবজমিন

বুধবারের বৈঠক শেষে যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, ইতালিতে অবস্থিত প্রায় এক লাখ ৪০ হাজার বাংলাদেশির একটি বড় অংশ ওই দেশের সমাজে মিশে গেছে। অভিবাসন বিষয়ে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা সংহত করার পদক্ষেপ নিয়ে বৈঠকে আলোচনা করেন উভয় নেতা। বৈধপথে অভিবাসন এবং অবৈধ অভিবাসন ঠেকানোর জন্য একটি সম্ভাব্য আইনি কাঠামো নিয়ে দুই প্রধানমন্ত্রী আলোচনা করেন।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে ইতালিতে একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য বাংলাদেশ থেকে কৃষি শ্রমিক পাঠানোর একটি চুক্তি হয়েছিলো। ওই চুক্তির অধীনে প্রায় ১৮ হাজার বাংলাদেশি সেদেশে গেলেও মেয়াদ শেষে ফেরত এসেছে ১০০ জনেরও কম শ্রমিক।
এরপর ২০১২ সালে কৃষি শ্রমিক নেয়ার চুক্তিটি বন্ধ করে দেয় রোম।