ডেস্ক ঃ
ইরানের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের সব নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের যে প্রচেষ্টা মার্কিন সরকার চালাচ্ছে তা প্রত্যাখ্যান করেছে ইউরোপের তিন দেশ ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানি। সেইসঙ্গে আমেরিকার এই প্রচেষ্টাকে ‘অবৈধ’ বলেও উল্লেখ করেছে ফ্রান্স। এক বিবৃতিতে ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার রাতে এ তথ্য জানায়।

পাশাপাশি ইরানের পরমাণু সমঝোতার রক্ষা করার জন্য ইউরোপীয় দেশগুলোকে অভিন্ন নীতি গ্রহণের আহ্বানও জানিয়েছে ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বিবৃতিতে মার্কিন সরকারের ওই প্রচেষ্টার তীব্র সমালোচনাও করা হয় বলে খবর দিয়েছে পার্সটুডে।

সম্প্রতি ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে জার্মান ও ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর যে বৈঠক হয়েছে তাও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, বৈঠকে তিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইরানের পরমাণু সমঝোতা সম্পর্কে পরবর্তী করণীয় ঠিক করতে তাদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করেছেন।

প্রসঙ্গত, ইরানের পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী তিন ইউরোপীয় দেশ হলো- ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানি। গতকাল বৃহস্পতিবার এই তিন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা লন্ডনে বৈঠক করেন। যেখানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা জোসেপ বোরেল।

২০১৫ সালে বিশ্বের ছয় শক্তিধর রাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের পরমাণু সমঝোতা যখন স্বাক্ষর হয় তখন তাতে মধ্যস্থতার ভূমিকা পালন করেছিলেন বোরেলের পূর্বসূরী ফেডেরিকা মোগেরিনি।

খবরে বলা হয়েছে, এদিন লন্ডন বৈঠকে তিন ইউরোপীয় দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের পাশাপাশি ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের মার্কিন প্রচেষ্টা প্রত্যাখ্যান করেন জোসেপ বোরেল।