গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার গাবতলী উপজেলার নেপালতলী ইউনিয়নকে দুইভাগে বিভক্ত করে নতুন নামে একটি ‘কদমতলী ইউনিয়ন পরিষদ’ নামকরণ করার দাবীতে কদমতলী এলাকাবাসীর উদ্যোগে সোমবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ চত্বরে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন নেপালতলী ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আলহাজ্ব ইউনুছ আলী (বীর মুক্তিযোদ্ধা), আতিকুর রহমান সবুজ, মহিদুল ইসলাম টুনু, আজিজুল হক জিন্না, মর্জিনা বেগম, স্থানীয় গণ্যমান্যের মধ্যে মন্টু, তারা, আঃ জলিল, রঞ্জু, শহীদুল, সিরাজুল ইসলাম খোকা, আকতারুজ্জামান মিন্টু, আহাদুজ্জামান, মিজানুর রহমান পান্না প্রমুখ।
উল্লেখ্য, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার প্রশাসনিক ব্যবস্থা ও জনসেবা মানুষের দোড়গড়ায় পৌছানোর লক্ষ্যে দেশের বৃহত্তম ইউনিয়নগুলিকে বিভক্ত করে নতুন ইউনয়ন পরিষদ গঠনের লক্ষ্যে কাজ করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় গাবতলীর বৃহত্তম নেপালতলী ইউনিয়নকে বিভক্ত করে আলাদাভাবে নতুন নামে ‘কদমতলী ইউনয়ন পরিষদ’ করার দাবীতে চলতি বছরের ১০মার্চে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে এবং গত ২০ফেব্রæয়ারীতে তিন হাজার ব্যক্তির স্বাক্ষরিত এক আবেদনপত্র বগুড়া জেলা পরিষদ কার্যালয়ে দাখিল করা হয়েছিল। কিন্তু সংশ্লিষ্ট দপ্তর বর্তমানে উক্ত আবেদনপত্রের দিকে কোন নজর না দিয়ে ‘সুখানপুকুর’ নামক নামকরণ করে একটি নতুন আলাদা ইউনিয়ন পরিষদ গঠনের প্রক্রিয়া চালাচ্ছেন।