ডেস্ক : করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি এড়াতে আগামী ১৭ ও ১৮ মার্চ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ১৯ মার্চ ইউরোপা লিগের যেসব ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল তার সবগুলো স্থগিত করা হয়েছে। নিজেদের ওয়েবসাইটে শুক্রবার দেওয়া এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করে ইউরোপীয় ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা উয়েফা। আগামী ২০ মার্চ এই দুই প্রতিযোগিতার পরবর্তী ধাপের ড্র হওয়ার কথা ছিল; স্বাভাবিকভাবে তাও স্থগিত হয়ে গেছে।

আগামী মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর ফিরতি লেগে মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল ম্যানচেস্টার সিটি-রিয়াল মাদ্রিদ ও ইউভেন্তুস-অলিম্পিক লিওঁ। প্রতিযোগিতাটির পরদিনের সূচিতে ছিল বায়ার্ন মিউনিখ-চেলসি ও বার্সেলোনা-নাপোলি ম্যাচ। মঙ্গলবারের ম্যাচ দুটি অবশ্য গত বৃহস্পতিবারই স্থগিত করা হয়।

রিয়ালের একজন বাস্কেটবল খেলোয়াড়ের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ায় দলটির সব অনুশীলন বাতিল করার বিষয়টি বৃহস্পতিবার জানায় দলটি। ক্লাবটির সব খেলোয়াড়কে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এর কিছুক্ষণ পর বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে ম্যাচ স্থগিতের ঘোষণা দেয় লা লিগা কর্তৃপক্ষ। আর দিনের শেষ ভাগে সিটির বিপক্ষে রিয়ালের ম্যাচ স্থগিতের ঘোষণা আসে।

ইউভেন্তুসের দানিয়েলে রুগানি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় দলটির সব খেলোয়াড় কোয়ারেন্টিনে আছেন। তাই একই সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তাদের ম্যাচটিও স্থগিত করা হয়। এবার স্থগিত হয়ে গেল পর দিনের ম্যাচও। সেই সঙ্গে ইউরোপা লিগের এ সপ্তাহের সূচিও।

আগামী ৩ এপ্রিল পর্যন্ত ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগসহ সব ধরনের ফুটবল নিষিদ্ধ করেছে ইংল্যান্ড। পরিস্থিতি বুঝে আগামী ৪ এপ্রিল পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে শুক্রবার বিবৃতিতে জানানো হয়।

আগামী ২ এপ্রিল পর্যন্ত বুন্ডেসলিগা স্থগিতের পরিকল্পনা করছে লিগ কর্তৃপক্ষ। তবে শুক্রবার আগের সূচি অনুযায়ী জার্মানির শীর্ষ লিগের ম্যাচ মাঠে গড়াবে। এছাড়া পরবর্তী ঘোষণা না আসা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ফ্রান্সের লিগ ওয়ানের সব ম্যাচ। আগেই আসে স্প্যানিশ লা লিগা ও ইতালিয়ান সেরি আ স্থগিতের ঘোষণা।