ডেস্ক: মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ড কার্যকর হওয়া যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লাকে ‘শহীদ’ উল্লেখ করে প্রতিবেদন প্রকাশ করায় দৈনিক সংগ্রাম অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভ করছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামের একটি সংগঠন। এসময় পত্রিকা কার্যালয়ের ভেতরে ভাঙচুরও করা হয়েছে। এরপরই পত্রিকাটির সম্পাদক আবুল আসাদকে হেফাজতে নিয়েছে হাতিরঝিল থানা পুলিশ।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লাকে শহীদ বলার মাধ্যমে তারা দেশের শহীদদের অবমাননা করেছে। দেশের সার্বভৌমত্বে আঘাত করেছে। আমরা চাই সরকারিভাবে পত্রিকাটি বন্ধ করে দেওয়া হোক। আমরা পত্রিকার মেইন গেটে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছি।’ পত্রিকার সম্পাদক আবুল আসাদকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মাহমুদ বলেন, ‘বিজয়ের মাসে একজন রাজাকার, দেশদ্রোহী কাদের মোল্লাকে সংগ্রাম পত্রিকা শহীদ অভিহিত করে সংবাদ প্রকাশ করেছে। আমরা এই ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে এখানে এসেছি। একই কাজের জন্য পত্রিকার সম্পাদককে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।’

পত্রিকা অফিসের কম্পিউটার, দরজা, জানালা, চেয়ার, টেবিল ও সম্পাদক আবুল আসাদের কক্ষে ভাঙচুর চালিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতাকর্মীরা। এরপর তারা গেটের বাইরে সংগ্রাম পত্রিকায় আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন। অফিসে ভাঙচুরের এক পর্যায়ে সম্পাদক আবুল আসাদকে হাতিরঝিল থানা পুলিশ নিজেদের হেফাজতে নিয়ে নেয়।

ডিএমপির তেজগাঁও জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার হাফিজ আল ফারুক বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থলে রয়েছি। কারা এই কাজ করেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’