ডেস্ক : কোকের পরিবর্তে পানি খাওয়ার পরামর্শ দিলেন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। হাঙ্গেরির ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে হাজির হয়ে বিজ্ঞাপনী সংস্থার পানীয় সরিয়ে দিয়ে আলোচনার খোরাক হয়েছেন তিনি। সংবাদ সম্মেলওেন এসে তিনি যা করেছেন তাতে বিশ্ববিখ্যাত কোমল পানীয় প্রতিষ্ঠান কোকাকোলার ব্র্যান্ড মূল্য ৪০০ কোটি ডলার কমে গেছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৩৩ হাজার ৯১৫ কোটি টাকা। আর তা মাত্র আধঘণ্টার ব্যবধানে।

গত সোমবার রাতে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে এসে কথা শুরুর আগেই টেবিল থেকে কোকাকোলার দুটি বোতল সরিয়ে পাশে রেখে দেন এবং পানির বোতল হাতে নিয়ে বলেন, কোক নয়, পানি খান। অথচ উয়েফা ও ইউরোর অন্যতম বড় স্পনসর এই প্রতিষ্ঠানটি। ফলে ঘটনার পর থেকেই বিতর্ক তুঙ্গে।
কিন্তু কেনো তিনি এমনটা করলেন তা এখনো স্পষ্ট নয়। যদিও সবাই ধারণা করছেন, স্বাস্থ্য সচেতনতার ওপর গুরুত্ব দিতেই ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর এ কাণ্ড। আর এতেই যেন শেয়ারবাজারে কোকাকোলার ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

সোমবার ইউরোপের শেয়ার মার্কেট খোলার সময় কোকাকোলার মূল্য ছিল ৫৬ দশমিক ১০ ডলার। এর আধঘণ্টা পর সংবাদ সম্মেলনে আসেন রোনালদো। তার এই কাণ্ডের মুহূর্ত পরই শেয়ারে দর ৫৫ দশমিক ২২ ডলারে নেমে আসে। অর্থাৎ এক লাফে ১.৬ শতাংশ দাম হারিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ফলে কোকাকোলার দাম কমে দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ৮০০ কোটি ডলার। যা আগে ছিল ২৪ হাজার ২০০ কোটি ডলার।
রোনালদোর এমন কাণ্ড অনেকেই সুস্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য এক ধরণের বার্তা হিসেবে দেখছেন। তবে বিজ্ঞাপনী প্রতিষ্ঠানের প্রতি এমন মনোভাব তিনি দেখাতে পারেন কিনা, সেটিও উঠে এসেছে আলোচনায়। এরইমধ্যে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে বলেও জানিয়েছে ইউরোপিয়ান গণমাধ্যমগুলো। ইউরোর আয়োজক উয়েফা এ বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত জানাবে বলেও জানিয়েছে গণমাধ্যমগুলো।