ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে এক ভয়াল থাবা বসিয়েছে নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। সংক্রমণের ভয়ে দিশেহারা গোটা মানবজাতি। অদৃশ্য এ শত্রুর মোকাবেলা করতে গিয়ে থমকে গেছে জনজীবন, স্থবির হয়ে পড়েছে বিশ্ব অর্থনীতি। এমন পরিস্থিতিতে সবার মনেই একটা প্রশ্ন- আসলে কবে কাটবে এই সংকট? কবে আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরবে পৃথিবী?

মানুষের মনের এই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছে সিঙ্গাপুর ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির একদল গবেষক। তারা জটিল এক মডেল ব্যবহার করে অনুমান করেছেন, বিশ্বজুড়ে কোন দেশে কবে বিদায় নেবে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসটি। এমনকি ভাইরাস অবসানের দিন-তারিখ পর্যন্ত অনুমান করেছেন তারা।

ব্রিটিশ দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই গবেষকদের মতে, করোনাভাইরাস সর্বপ্রথম বিদায় নেবে সিঙ্গাপুর থেকে। আগামী ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে দেশটিতে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে সংক্রমণে থেমে যাবে। আগামী ১২ আগস্টের মধ্যে ইতালি থেকেও নিশ্চিহ্ন হবে এটি।

এছাড়া যুক্তরাজ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণের অবসান ঘটবে ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে। অন্যদিকে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের দিক দিয়ে শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে এর তাণ্ডব ১১ নভেম্বরের মধ্যে থামবে বলে ধারণা করছেন ওই গবেষকরা।

তবে এই পূর্বাভাস পুরোপুরি অনিশ্চিত এবং সময় ও পরিস্থিতির সঙ্গে পরিবর্তন হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে গবেষক দলটি। তাদের মতে, বিভিন্ন দেশে লকডাউন শিথিল করা, একে অন্যের থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ অনেক বিষয় সংক্রমণ বন্ধে ভূমিকা রাখবে।

এ বিষয়ে সিঙ্গাপুর ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির একজন মুখপাত্র বলেন, প্রতিটি অনুমানই প্রকৃতিগতভাবে অনিশ্চিত। পাশপাশি এ মডেল অনেক দেশের বাস্তবতায় যথাযথ নয়। তাই পাঠকদের অবশ্যই সতর্কতার সঙ্গে এই পূর্বাভাসের তথ্য গ্রহণ করতে হবে। পূর্বাভাসে উল্লিখিত দিন-তারিখ নিয়ে অতি আশাবাদী হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেলে সেটি বিপজ্জনক হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। এরপর ধীরে ধীরে তা গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুসারে, এখন পর্যন্ত গোটা বিশ্বে ৫৪ লাখের বেশি মানুষ প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন ৩ লাখ ৪৪ হাজারের বেশি। চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২২ লাখ ৪৮ হাজারের বেশি মানুষ।