সাব্বির হাসান, গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার গাবতলী আন্তঃজেলা ডাকাতদলের দুই সদস্যকে গ্রেফতার এবং ১৬লাখ টাকা মূল্যের ২১টি চোরাই গরু উদ্ধার করেছে পুলিশ। ১১ই জুলাই দিবাগত রাতে পৌরসভাধীন উনচুরখী মোড়ে এক সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে ওই গরুগুলো উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলো, গাবতলী পৌরসভাধীন উনচুরখী উত্তরপাড়া গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে সাকিল (২৪) এবং একই গ্রামের মৃত গণি শেখের ছেলে আব্দুল বারী ওরফে যুবরাজ (৩২)।
জানা গেছে, চট্রগ্রাম জেলার বোয়ালখালী উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের মৃত জাকির হোসেনের ছেলে গত ১১ই জুলাই সন্ধ্যায় ১৬লাখ টাকা মূল্যের নিয়ে ট্রাকযোগে নীলফামারী হতে চট্টগ্রামের উদ্যেশ্যে রওনা দেয়। পথিমধ্যে গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপুরের কালিতলা পৌঁছালে পূর্বে থেকে ওঁত পেতে থাকা ৭/৮জনের একটি আন্তঃজেলা ডাকাতদল একটি খালি ট্রাক গরু বোঝাই ওই চলন্ত ট্রাকের পথরোধ করে। ডাকাতদল গরু ব্যবসায়ী আবু জাফর (২৩)সহ ৫জনকে ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ট্রাক থেকে নামিয়ে রাস্তার পার্শ্ববতী কচুক্ষেতে রশি দিয়ে বেঁেধ গরু বোঝাই ওই ট্রাকটি চালিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। রাত অনুমান ২টায় গরুগুলো বগুড়া গাবতলীর উনচুরখী মোড়ে আনলোড করাকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাবতলী মডেল থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম, তদন্ত ওসি জামিরুল ইসলাম, এসআই শামীম, সুব্রোত, আলহাজ্ব, কুদ্দুস ও এএসআই রবিউল ও কাজেমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ উনচুরখী মোড়ে এক সাঁড়াশি অভিযান চালায়। পুলিশ এ সময় ১৬লাখ টাকা মূল্যের ২১টি চোরাই গরু ও একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ট-১৫-৭২০৭) উদ্ধার করে এবং সাকিল ও যুবরাজ নামের ২জনকে গ্রেফতার করে থানায় আনে। খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বিপিএম গতকাল সোমবার গাবতলী মডেল থানায় এসে গরু চুরির বিষয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে প্রেসব্রিফিং করেন এবং সার্বিক খোঁজখবর নেন। এ বিষয়ে মডেল থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃতরা আন্তঃজেলা ডাকাতদলের সদস্য। এদের সাথে আরো কয়েকজন জড়িত রয়েছে। তাদেরকে গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।