গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়া গাবতলীতে পারিবারিক কলহের জের ধরে গৃহবধু জাকিয়া বেগম (১৯) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গত বুধবার রাতে উপজেলার রামেশ্বরপুর ইউনিয়নের নিশুপাড়া গ্রামে স্বামীর বাড়ীতে এ ঘটনাটি ঘটে। সংবাদ পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে।
জানা গেছে, গাবতলী উপজেলার রামেশ্বরপুর ইউনিয়নের নিশুপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে রিপন মিয়া (২২) এর সাথে একই ইউনিয়নের শুভপাড়া গ্রামের জাহিদুল ইসলামের মেয়ে জাকিয়া বেগমের প্রেমের সূত্র ধরে পারিবারিক প্রস্তাবে ৪বছর আগে বিয়ে হয়। রিপন ও জাকিয়া সম্পর্কে আপন খালাতো ভাই-বোন ছিল। ৪বছরের সংসার জীবনে তাদের কোন সন্তান ছিলো না। তবে স্থানীয়রা জানিয়েছে, রিপন ও জাকিয়ার বয়স খুব কম ছিলো। বাল্য বিয়ে হওয়ার কারণে তাদের মনমানসিকতায় পরিপক্ক ছিলো না। তাই ছোটো-খাটো বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে মতবিরোধ চলতো। এরই এক পর্যায়ে ঝগড়া-বিবাদের জের ধরে গত বুধবার রাতে গৃহবধু জাকিয়া বেগম ঘরের তীরে ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জাকিয়ার লাশ উদ্ধার করে এবং রিপনের মাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।
এ ব্যাপারে থানার ওসি সাবের রেজা আহমেদ এর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে আত্মহত্যার বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেন।