সাব্বির হাসান, গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার গাবতলীতে জমির মালিকানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ৫শতক জমির মরিচের গাছ উপড়ে ফেলে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষরা। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার রাতে উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের ধোড়া মধ্যপাড়া গ্রামে।
জানা গেছে, মহিষাবান ইউনিয়নের ধোড়া পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে ওমর আলী ধোঁড়া মৌজায় ভোগদখলীয় ৩১শতক জমিতে মরিচের চারা রোপন করে। বর্তমানে রোপনকৃত চারায় মরিচ ধরেছে। কিন্তু ধোড়া মধ্যপাড়া গ্রামের আলা বক্সের ছেলে মজিবুর রহমান ওই জমি থেকে সাড়ে ৪শতক জমির ভূয়া দলিল সৃষ্টি করে মালিকানা দাবী করে আসছিল। বর্তমানে ওই ৪শতক জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। মামলার প্রেক্ষিতে আদালত ওই জমির উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বলে জানান জমির প্রকৃত মালিক ওমর আলী। এমতবস্থায় গত সোমবার প্রতিপক্ষ মজিবর রহমান, সন্ত্রাসী মেহেদী হাসান পলাশ ও মোজাফ্ফরসহ একদল নিয়ে ওমর আলীর জমিতে রোপনকৃত মরিচের গাছ রাতের আধাঁরে উপড়ে নিয়ে গেছে। এরপর ওই জমিতে পানি দিয়ে ভিজিয়ে ফেলেছে। এতে করে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ওমর আলী। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল আলীম উপরোক্ত তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি খুব দুঃখজনক। অপরাধীদের শাস্তি হওয়া দরকার। এ ঘটনায় গাবতলী মডেল থানায় অভিযোগের প্রস্তুতি চলছে।