গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়া গাবতলীর কাগইলের পীরপাড়ায় আগুনে পুড়ে ক্ষতিগ্রস্থ দুলাল সরকারের হাতে ৮ই এপ্রিল বৃহস্পতিবার আড়াই বান্ডিল ঢেউটিন ও নগদ অর্থ বিতরণ করলেন বগুড়া পৌর আ’লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান রফি নেওয়াজ খান রবিন। এ সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সার্বিক বিষয়ে খোঁজ-খবর নেন। উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক মিলু, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল গফুর, মিজানুর রহমান মিজান, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর প্যানেল মেয়র শাহজাহান আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু জাহিদ পায়েল, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিহাদ আল হাসান জুয়েল, বগুড়া-৭আসনের এমপির গাবতলী প্রতিনিধি যুবলীগ নেতা জাফরু পাইকার, রামেশ্বরপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি রেজাউন নবী আলমগীর, কাগইল ইউনিয়ন আ’লীগের আহবায়ক শফি আহম্মেদ স্বপন, যুগ্ম আহবায়ক ও কাগইল ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান সাজেদুর রহমান শামীম, পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনির ইসলাম পিপুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সরকার ছঈম, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি কৌশিক আহম্মেদ, স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম, গণ্যমান্যদের মধ্যে আবু সাহিন, লুৎফর রহমান প্রমুখ। উল্লেখ্য, গত ৫ই এপ্রিল রাত সাড়ে ১২টায় কাগইল ইউনিয়নের পীরপাড়া গ্রামে বিদ্যুতের সর্টসার্কিট থেকে দিনমজুর দুলাল সরকারের প্রথমে গোয়াল ঘর পরে বসতঘর আগুনে পুড়ে ভূস্মিভূত হয়। এ সময় আগুন নিভাতে গিয়ে কমপক্ষে ৫জন আহত হয়। আগুনের লেলিহান শিখায় দুলালের ৫টি টিনসেট ঘর এবং ঘরে থাকা জমির দলিলপত্র, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, আসবাপত্র, ব্যাংকের চেক বহি, গাছপালা, হাঁস-মুরগী-পশুপাখীসহ নগদ ১লক্ষ ৫০হাজার টাকা পুড়ে প্রায় ১০লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধিত হয় বলে দুলাল সরকার দাবী করেন। অগ্নিকান্ডে ব্যাপক ক্ষতিসাধিত হওয়ায় দুলাল সরকার পরিবার পরিজন নিয়ে খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছিলেন। খবর পেয়ে গতকাল দুপুরে দুলাল সরকারের পোড়া বাড়ীতে এসে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন উপজেলা চেয়ারম্যান রফি নেওয়াজ খান রবিন।