নোতুন খবর.কম :
বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক এমপি মোঃ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু আওয়ামী সরকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, বিএনপি নেতাকর্মিদের বিরুদ্ধে বার বার গায়েবী মামলা করে সরকারের শেষ রক্ষা হবেনা। ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় আসা আওয়ামী সরকার লাখ লাখ নেতাকর্মিদের বিরুদ্ধে এমন কি মৃত নেতাকর্মিদের বিরুদ্ধেও মামলা দিতে ছাড়েনি। সাবেক এমপি লালু আরোও বলেন, পেছনের দরজা দিয়ে আসা শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে ঢাকায় উপ-নির্বাচনে তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় গাড়ী পুড়িয়েছে। জনগণ এই সমস্ত ন্যাক্কারজনক ঘটনা স্বচক্ষে দেখলেও উদোর পিন্ডি বুধোর ঘড়ে চাপাচ্ছেন। বুধবার সকালে শহরের নবাববাড়ী রোডস্থ বিএনপি দলীয় কার্যালয়ের সামনে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলসহ নেতাকর্মিদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা, গ্রেফতার ও হয়রানীর প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বগুড়া জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু হাসান এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যান এর সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি আরোও বলেন, কত বড় মাপের নিলর্জ্জ ইসি কমিশন , তারা বলে ৫মিনিটে ভোট গণনা করা সম্ভব, বাংলাদেশে কি ধরণের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় তা জনগণের বুঝতে বাকি আছে কি। যে ছাত্রনেতা খোকন মায়ের পাশে থেকে চিকিৎসার জন্য সেবা করছে,তার বিরুদ্ধে ঢাকায় গাড়ী পোড়ানো মামলা দিলো। জনগনের সস্পৃকততা নাই বলেই সরকার বিরোধী দমনে মিশনে নেমেছে। জিয়া পরিবার ও বিএনপি’র বিরুদ্ধে কোন ষড়ষন্ত্রই বাংলার মাটিতে সফল হবেনা, জিয়ার সূর্য্য সৈনিকেরা বেঁেচ থাকতে তা সফল হতে দেবেনা। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম আহŸায়ক ফজলুর বারী তালুকদার বেলাল, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপির আহŸায়ক কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা, আলী আজগর তালুকদার হেনা, জেলা বিএনপির আহŸায়ক কমিটির সদস্য এমআর ইসলাম স্বাধীন, কেএম খায়রুল বাসার, শেখ তাহা উদ্দিন নাহিন, জিয়া শিশু কিশোর সংগঠন কেন্দীয় কমিটি সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন চৌধরী, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক এ বি এম মাজেদুর রহমান জুয়েল, অধ্যক্ষ তানভির আলম রিমন, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ইমরান হোসেন, তারিক মজিদ সোহাগ, সাইদুল ইসলাম, এনামুল রশিদ চন্দন, রাগিব ইয়াছির মানিক, সাফিনুর ইসলাম মিল্টন, যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক রাসেল , সজিব, রাকিব, বাবুল,সানু, রিদয়সহ জেলা ছাত্রদলের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।