নোতুন খবর.কম : দীর্ঘ প্রায় ৫ বছর পর বগুড়ায় আওয়ামী লীগের জেলা কমিটির সম্মেলন শনিবার। পার্টি অফিস সহ সম্মেলন স্থান আলতাফুন্নেছার খেলার মাঠ এবং শহরের প্রবেশদার বনানী থেকে মাটিডালি আর জিরো পয়েন্ট সাতমাথায় ব্যানার, তোরন, ফেষ্টুনে ভরেগেছে। সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্ব›দ্বীতার জন্য ১৮ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। টানা ১৭ বছর আলহাজ¦ মমতাজ উদ্দিন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি থাকার পর কয়েকমাস আগে তিনি ইন্তেকাল করেন। তিনি থাকলে বোধহয় সভাপতি পদে অন্যকোন প্রার্থী আগের মতই দেখা যেতনা। ৫১৫ জন কাউন্সিলর এবং ২০ হাজারেরও বেশি ডেলিগেট রয়েছে।
শনিবার সকাল ১০টায় শহরের আলতাফুন্নেছা খেলার মাঠে অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলন উদ্বোধন করবেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। প্রধান বক্তা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক। বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা.মকবুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি থাকবেন যথাক্রমে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএচএম খায়রুজ্জামান লিটন, বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান, বগুড়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবর রহমান, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নুরুল ইসলাম ঠান্ডু ও মেরিনা জাহান। সঞ্চালনা করবেন দলের জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু।
এবারের সম্মেলনে সভাপতি পদে যারা প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন তারা হলেন- জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, ৪ সহ-সভাপতি যথাক্রমে তোফাজ্জল হোসেন দুলু মাস্টার, টি এম মুসা পেস্তা, অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন মুকুল ও অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম মন্টু, জেলা কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট তবিবর রহমান তবি ও শহর আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক শেখ শামিম।
সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্ব›দ্বীরা হলেন- জেলা কমিটির তিন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে মঞ্জুরুল আলম মোহন, রাগেবুল আহসান আহসান রিপু ও টি জামান নিকেতা, তিন সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কুমার রায়, আসাদুর রহমান দুলু ও শাহরিয়ার আরিফ ওপেল, দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন নবাব, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শেরীন আনোয়ার জর্জিস, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল আলম আক্কাস, এবং সোনাতলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিনহাদুজ্জামান লিটন।
দলীয় সূত্রে জানাযায়, বগুড়ায় সর্বশেষ ২০১৪ সালের ১০ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের জেলা কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ওইদিন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে যথাক্রমে মমতাজ উদ্দিন এবং মজিবর রহমান মজনুকে পুননির্বাচিত ঘোষণা করা হয়। তবে সম্মেলনের ২২ মাস পর ২০১৬ সালের ১৩ অক্টোবর ৭১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। পরে আরও দু’জনকে কো-অপক্ট করা হয়। অবশ্য সেই কমিটির সভাপতি মমতাজ উদ্দিনসহ ৮ সদস্য এরই মধ্যে ইন্তেকাল করেছেন।
বগুড়ায় এবার আওয়ামী লীগের সম্মেলন নানা কারণে নেতা-কর্মীদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। এসব কারণের মধ্যে অন্যতম হলো প্রায় পঁচিশ বছর পর বগুড়ায় দলটির জন্য সভাপতি পদে নতুন নেতৃত্ব বেছে নেওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। কারণ সেই ১৯৯৪ সাল থেকে সভাপতি পদে আসীন মমতাজ উদ্দিন চলতি বছরের ১৭ ফেব্রæয়ারি প্রয়াত হয়েছেন।