ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহ জেলায় ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত হয়ে ১৩ দিনে দু,জন মারা গেল। মারা যাওয়া ব্যাক্তিরা হলেন একজন এমবিবিএস ডাক্তার ও অপর জন পুলিশের এএসআই। ডেঙ্গু জ¦র নিয়ে জেলা জুড়ে এখন অনেকেই আতঙ্ক হয়ে পড়ছেন। এ দু’জন কে উন্নত মানের চিকিৎসা দিয়েও বাঁচানো সম্ভব হয়নি। ফলে এখন অনেকেই আতঙ্ক হয়ে পড়েছে। গত ৩ জুলাই বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের (রেডিওলোজী ইমেজিং) বিভাগের জুনিয়ার কনসালটেন্ট ডা. নিগার নাহিদ ডেঙ্গু জ¦র সিনড্রোম রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার স্কয়ার হাসপালে মারা যান। তিনি ২৫তম বিসিএস শেষে দেশ সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চিকিৎসক হিসেবে চাকুরিতে যোগদান করেন। অপরদিকে ঝিনাইদহের মহেশপুর থানায় কর্মরত এ এস আই আসাদুজ্জামান আসাদ ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত হন। তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি হয় চিকিতসার জন্য। সেখানে শারিরীক অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য ১৫ জুলাই বিকালের দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল থেকে ঢাকায় নেওয়ার সময় পথিমধ্যেই তিনি মারা যান। এ এস আই আসাদের বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গার জগন্নাথপুর গ্রামে। এ দু,জন ডেঙ্গু জ¦রে মারা যাবার কারণে এলাকায় চরম আতঙ্ক সৃষ্টি হয়ে পড়েছে।