উজ্জল চক্রবর্তী শিশির দুপচাঁচিয়া(বগুড়া) সংবাদদাতাঃ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনকে ত্বরান্বিত করতে তৃণমূলকে ঐক্যবদ্ধ করাই আমাদের লক্ষ্য। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের নির্দেশ মোতাবেক তৃণমূলের মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে সকলের অংশ গ্রহণের ভিত্তিতে বিএনপির সকল পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হবে। শুক্রবার দুপুরে দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া পৌর বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বগুড়া-৬ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা বিএনপির আহবায়ক গোলাম মোঃ সিরাজ এ কথাগুলো বলেন। ধানপুজা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় খেলার মাঠে পৌর বিএনপির আহবায়ক আনারুল হক বাবুর সভাপতিত্বে ও সাবেক ছাত্রদল নেতা রাশেদুল ইসলাম রাশেদ এর পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোশারফ হোসেন, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এ্যাড.এ.কে.এম সাইফুল ইসলাম, ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, বিএনপির জাতীয় নিবার্হী কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা, জেলা বিএনপির সদস্য এম আর ইসলাম স্বাধীন, হামিদুল হক চৌধুরী হিরু। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা যুবদলের আহবায়ক খাদেমুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের আহবায়ক মাজেদুর রহমান জুয়েল, যুগ্ম আহবায়ক সরকার মুকুল প্রমূখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন দুপচাঁচিয়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এ,এইচ,এম নূরুল ইসলাম খাঁন হিরু, যুগ্ম আহবায়ক হেলাল উদ্দিন, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল হামিদসহ দুপচাঁচিয়া উপজেলা,পৌর, তালোড়া পৌর বিএনপি ও পার্শ্ববর্তী উপজেলার বিএনপি এবং অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ সম্মেলনে পৌর এলাকার ৯টি ওয়ার্ডের ৬৩৯ জন কাউন্সিলর তাঁদের ভোটাধিকারের মাধ্যমে সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত করবেন। সভাপতি পদে আব্দুল জলিল খন্দকার বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কাউন্সিলরদের প্রদানকৃত ভোট গণনা চলছিল। নির্বাচনে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি মাফতুন আহম্মেদ খাঁন রুবেল।