নোতুন খবর.কম : করোনা কালের আয়োজনের ছেদ পড়েনি বগুড়ার ধুনট উপজেলার সরকার পাড়ার শত বছরের ঐতিহ্যের ” বউ” মেলার।
খোজ নিযে জানা যায়, ধুনট উপজেলা সদরের সরকার পাড়ায় প্রতি বছরই দশমীর দিনে সকাল থেকে প্রতীমা বিসর্জন পর্যন্ত বসে বউ মেলা। মেলার ক্রেতারা সবাই মহিলা বলে মেলাটির নাম হয়েছে বউ মেলা। মেলায় শুধু হিন্দু সম্প্রদায় নয়, মুসলিম নারীদের আগমন ঘটে। বছরের এই একটি ভিন্ন ধর্মী মেলার প্রতীক্ষায় থাকে নারীরা। ইছামতি নদীর কোল ঘেঁসে সরকার পাড়ায় এবারও বসেছিল বউ মেলা। করোনা কালেও মেলায় ক্রেতা- বিক্রেতার উৎসাহের কমতি ছিল না। দুর দুরান্ত থেকেও নারীরা এসে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কেনাকাটা করেছে। নারীদের চুড়ি, ফিতা, লিপস্টিক থেকে সব ধরনের সামগ্রী এবং শিশুদের খেলনার সমাহর ছিল মেলায়।অনিতা রায় এসেছিল বিশ কিলোমিটার দুরের গোপাল নগর থেকে। তিনি জানালেন, মেলায় শুধু মহিলারাই ক্রেতা থাকে এ জন্য প্রতিবছরের ন্যায় এবারও তার দুই শিশুকে নিয়ে এসেছে।
ফৌজিয়া বিথী একজন স্কুল শিক্ষিকা। তিনিও এসেছিলেন পাশের ধুনট থেকে। তিনি জানালেন, ছোট বেলা থেকেই এই মেলায় আসি। তিনি তার সন্তানদের সাথে নিয়ে কেনাকাটা করেছেন বলে জানান। কেনা কাটা এবং মেলার আনন্দ দুটোই খুবই উপভোগ্য।বগুড়া শহরের সান্দার পট্টির দোকানদার অসিত জানালো, মেলার সময় আমাদের জানা আছে। তাই ডাকতে হয়না। চলে এসেছি। বেচাকেনাও বেশী হয়েছে।
মেলা কমিটি সভাপতি সুবীর কুমার সরকার জানান, শত বছরের এই মেলা করোনার সময় হলেও মানানো জাননি কাউকে। মেলার দোকানীরা সময়টা জানে। তারা দোকান বসিয়েছে আর ক্রেতারাও উপচে পড়া ভীড় জমিয়েছে।