ডেস্ক : দেশজুড়ে শীতের তীব্রতা আরও বাড়তে পারে। জানুয়ারির মধ্যপর্বে বয়ে যেতে পারে বড় শৈত্যপ্রবাহ। তার সঙ্গে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি বাড়াতে পারে ঠান্ডার মাত্রা। এমনই বার্তা দিচ্ছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য মতে, চলতি মাসের ১৩ ও ১৪ তারিখ পর্যন্ত শৈত্যপ্রবাহ বাড়তে পারে। মাসের মাঝামাঝি সময়ে শীত কমে এলে জানুয়ারির ১৯ ও ২০ তারিখের দিকে আবারও শৈত্যপ্রবাহ হতে পারে। শেষ বড় ধরনের সপ্তাহের শৈত্যপ্রবাহের পাশাপাশি, দেশের বেশকিছু অঞ্চলে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। রাজধানীসহ দেশের দক্ষিণাঞ্চলে গতকাল থেকেই দ্বিতীয় দফায় বেড়েছে শীতের প্রকোপ। আবার ঢাকায় শৈত্যপ্রবাহ না বইলেও উত্তরের রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে বয়ে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ। পাশাপাশি দেশের বেশকিছু অঞ্চলে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়ছে। এই দুই বিভাগের বেশির ভাগ জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা এখন এক অঙ্কে নেমে এসেছে।

‘জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহ নাগাদ শীত জেঁকে বসার সম্ভাবনা আছে। চলতি সপ্তাহের শীত ১৫ তারিখ পর্যন্ত থাকবে এর পর আবার শীত কমে আসবে। এই মাসে শীত কমবে বাড়বে, কখনো স্থির থাকবে না।’‘এসময় দেশের দক্ষিণাঞ্চলের মতো সারা দেশে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। বৃষ্টি ও তীব্র শীতে চলতি মাসে দুই দফা ভোগাবে সাধারণ মানুষকে। তবে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ ভোগাবে চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে।’

উল্লেখ্য, তাপমাত্রা ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস হলে তাকে মাঝারি মাত্রার শৈত্যপ্রবাহ বলে। তাপমাত্রা যদি ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নামে তা তীব্র শৈত্যপ্রবাহ। আর ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাকে বলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। এই হিসাবে শুধু রংপুর বিভাগে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।