প্রতিনিধি:
বগুড়ার ধুনট উপজেলায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহ আলমের বিরুদ্ধে চিথুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। তিনি উপজেলার গোসাইবাড়ি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও চিথুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি।

শনিবার সকালের দিকে ওই বিদ্যালয় চত্বর থেকে ২টি ইউক্যালিপটাস, ১টি নিম ও ১টি আম গাছ কাটা হয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল থেকে গাছের কাটা অংশ জব্দ করেছেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (টিও) ফেরদৌদী বেগম।

এলাকাবসীরা জানান,, উপজেলার গোসাইবাড়ি ইউনিয়নের চিথুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বরে দীর্ঘদিন আগে বিভিন্ন জাতের গাছ রোপন করা হয়। গাছ গুলো বর্তমান মুল্যবান হয়ে উঠেছে। সেখান থেকে শনিবার সকালের দিকে গাছ গুলো কাটা হয়। এ সময় স্থানীয় লোকজন বাধা দিয়ে কাটা গাছের অংশ গুলো বিদ্যালয় চত্বর থেকে অপসারণ করতে পারেনি সভাপতি। ফলে বিদ্যালয় চত্বরেই পাড়ে আছে গাছের কাটা অংশ।

এ বিষয় চিথুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তহমিনা আকতার বলেন, বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজের জন্য সভাপতির পরামর্শে মরা গাছ গুলো কাটা হয়েছে। এ বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে মৌখিক ভাবে জানানো হয়েছে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহ আলম বলেন, বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর ও শহীদ মিনার নির্মানের স্থানে গাছ গুলো ছিল। ওই গাছ গুলো না কাটলে উন্নয়ন কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজের জন্যই গাছ গুলো কাটা হয়েছে। এ বিষয়ে সরকারি ভাবে কোন অনুমতি নেওয়া হয়নি।

ধুনট উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (টিও) ফেরদৌসী বেগম বলেন, বিদ্যালয়ের গাছ কাটার বিষয়ে কোন প্রকার অনুমতি দেওয়া হয়নি। তবে শহীদ মিনার নির্মান কাজের জন্য গাছ গুলো কেটেছেন। সংবাদ পেয়ে গাছের কাটা অংশ জব্দ করে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের জিম্মায় রাখা হয়েছে। পরবর্তিতে গাছের কাটা অংশ নিলাম ডাকের মাধ্যমে বিক্রয় করা হবে। তবে গাছ গুলো মরা নয় বলে তিনি জানান।