প্রতিনিধি: উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলের ও টানা বর্ষনের কারনে যমুনা নদী পানি ব্যপক বৃদ্ধি পাওয়ায় পানি বন্দি হয়েছে প্রায় ৫ শতাধিক পরিবার। ফলে উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়ের যমুনা নদীর তীরবতী বন্যা নিয়ন্ত্রন বাধের পূর্ব পাশে পাকড়তলী, উত্তর শহরাবড়ি, দক্ষিন শহরাবাড়ি, শিমুলবাড়ি, বানিয়াযান, বরইতলী, নিউসারিয়াকান্দি, কৈয়াগাড়ি, কচুগাড়ি, ভান্ডারবাড়ি, ভুতবাড়ি, পুকুরিয়া ও বৈশাখীচর গ্রামসহ প্রায় ৫শতাধিক পরিবার পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। পানি বন্দির ফলে এসব গ্রামের সাধারন মানুষ গরু, ছাগলসহ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাধ সহ নিরাপদ স্থানে আশ্ময় নিয়েছে। বন্যা দুর্গত এলাকায় সাধারন মানুষের দুর্ভোগে জীবন যাপন করছে। শতাধিক হেক্টর জমির ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে। বগুড়ার পাউবোর কর্মকর্তা জানান, ২৪ ঘন্টায় ৪৫ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় যমুনার পানি বিপদসীমার ৮২ সিন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।