প্রতিনিধি :
বগুড়ার ধুনট উপজেলায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাস রোধ করে হাসিলা বেওয়া (৪৫) নামে এক ভিক্ষারিনীকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের আনারপুর ঘুঘড়াপাড়া গ্রামের ধান ক্ষেত থেকে ওই বিধবা নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত হাসিলা বেওয়া উপজেলার হাসাপোটল গ্রামের মৃত মাওলা বক্সের স্ত্রী।
স্হানীয়রা জানান, প্রায় ২৫ বছর আগে স্বামীর মৃত্যুর পর হাসিলা বেওয়া আনারপুর ঘুঘড়াপাড়া গ্রামে তার বাবার বাড়িতে একটি চৌচালা টিনের ঘরে বসবাস করে আসছিল। আর ছেলে হাসেম (২৬) তার খালা ধলি বেগমের বসতবাড়ী থেকে দিন মুজুরের কাজ করে।
একারনে হাসিলা বেওয়া ওই বাড়িতে একাই রান্নাবান্না করে খান। সে দীর্ঘদিন ধরে সকালে বাসা থেকে বের হয়ে এলাকার বিভিন্ন লোকজনের কাছে ভিক্ষা করে জীবন যাপন করতেন। কখনো রাত্রীতে বাসায় ফিরেন আবার কখনো রাত্রীকালে বাসার বাইরে থাকতেন। সোমবার সে সারাদিন ভিক্ষা করে সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাড়িতে ফেরেন। বাড়িতে ফেরার অধাঘন্টা পর হাসিলা তার বোন পাশ্ববর্তী ধলি বেগমের বাড়িতে যাওয়ার জন্য বের হয়। এরপর থেকেই সে নিখোঁজ ছিলো। মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে স্থানীয় লোকজন তার বাড়ির প্রায় ৫০০ গজ দূরের একটি ধান ক্ষেতে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় হাসিলা বেওয়ার মৃতদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়।
ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা জানান, খবর পেয়ে ধুনট থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছে। তাকে , গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। কি কারনে হত্যা করা হয়েছে এবংকারা এঘটনার সাথে জড়িত এবিষয়ে তদন্ত চলছে।