ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস এরই মাঝে কেড়ে নিয়েছে অনেক মানুষের জীবন। তবে এবার এই করোনাভাইরাসের কারণে সম্ভাব্য ধর্ষণের হাত থেকে বেঁচে গেলেন চীনেরই এক তরুণী।

ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘরে একা পেযে এক যুবক ওই তরুণীকে ধর্ষণে উদ্যত হলে তিনি দাবি করেন, ‘আমি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত’। এতে ভয় পেয়ে দ্রুত সটকে পড়ে সেই যুবক।

পরে তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ সন্দেহভাজন সেই যুবককে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার হওয়ার পর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শাও নামের ২৫ বছর বয়সী ওই যুবক গত শুক্রবার উহানের নিকটবর্তী জিংশান শহরে ওই তরুণীর শোবার ঘরে ঢুকে তাকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগ স্বীকার করে নিয়েছেন।

ভুক্তভোগী তরুণী পুলিশকে বলেন, গত শুক্রবার বাড়িতে তিনি একা ছিলেন। ওই সময় এক যুবক তার বাড়িতে ঢুকে তাকে একা পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ অবস্থায় ওই তরুণী নিজেকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দাবি করে বলেন, ‘আমি সবে উহান থেকে ফিরেছি এবং করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। আর তাই বাড়িতে আমি একা রয়েছি।’ এ সময় ওই তরুণী নিজেকে ভাইরাসে আক্রান্ত প্রমাণ করতে বারবার কাশতে থাকেন।

তিনি জানান, এ অবস্থায় ভয় পেয়ে পালিয়ে যায় ওই যুবক। অবশ্য যাওয়ার আগে নগদ ৩ হাজার ৮০ ইউয়ান (৩৩৮ পাউন্ড) লুটে নিয়ে যায় বলেও দাবি করেছেন ওই তরুণী।

প্রসঙ্গত, চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে গত ডিসেম্বরের প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৯০ জনে। আর এখন পর্যন্ত এ ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ২৪ হাজার ৩২৪ জন।