ডেস্ক :
ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেনের প্রচারদলের পক্ষ থেকে শুক্রবার প্রেসিডেন্ট ডোনান্ড ট্রাম্পকে এই হুশিয়ারি দেয়া হয়েছে। পরাজয় মেনে নিতে না চাইলে যুক্তরাষ্ট্রে মানুষই সসম্মানে তাদেরকে হোয়াইট হাউস থেকে বের করে দেবেন। খবর আল জাজিরার।

বাইডেনের প্রচারদলের মুখপাত্র অ্যান্ড্রু বেটস বলেন, আমরা গত ২৯ জুলাই বলেছিলাম যুক্তরাষ্ট্রের মানুষই এবারের নির্বাচনের মূল নির্ধারক শক্তি হবেন। আর গণতান্ত্রিক সরকারের সেই ক্ষমতা রয়েছে যাতে হোয়াইট হাউস থেকে অবৈধ প্রবেশকারীদের সসম্মানে বের করে দেয়া যেতে পারে।

এরমধ্যেই ভোট গণনা প্রশ্নবিদ্ধ করে সামাজিকমাধ্যমে ফের টুইট করেছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

শনিবার এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, নির্বাচনী রাতে এসব রাজ্যে আমি বড় ব্যবধানে এগিয়ে ছিলাম। কিন্তু দিন যত যাচ্ছে, সেই ব্যবধান অলৌকিকভাবে নাই হয়ে যাচ্ছে। আইনি প্রক্রিয়া সামনে এগুলো সম্ভবত সেই ব্যবধান আবার ফিরে আসবে।

গত ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর শুরু হয় গণনা। ৪৫ রাজ্যে গণনা শেষে ইলেকটোরাল ভোটে যখন বাইডেন এগিয়ে যান. ঠিক সেই মুহূর্তে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ করেন ট্রাম্প।

এরপর বাকি পাঁচ রাজ্যের ইলেকটোরাল ভোট নিয়ে চলছিল না জল্পনা-কল্পনা। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত পেনসিলভেনিয়া, জর্জিয়া, নর্থ ক্যারোলাইনা ও অ্যারিজোনায় ভোট গণনায় এগিয়ে ছিলেন ট্রাম্প। আর নেভাদায় এগিয়ে ছিলেন বাইডেন।

তবে সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দুজনের ভোটের ব্যবধান কমতে থাকে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জো বাইডেন জর্জিয়া, অ্যারিজোনা ও পেনসিলভেনিয়ায় তার প্রতিদ্বন্দ্বী ট্রাম্পকে ছাড়িয়ে ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে গেছেন।

পেনসিলভেনিয়ায় কয়েক হাজার ভোটের এগিয়ে থাকা জো বাইডেন যদি তার এই অবস্থান ধরে রাখতে পারেন তাহলে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পুনঃনির্বাচনের স্বপ্ন এখানেই ধসে পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।