নোতুন খবর.কম : পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা পরিচয়ে অনলাইনে বিকাশ ও রকেটের মাধ্যমে লক্ষ-লক্ষ টাকা প্রতারনার মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়ায় অভিযোগে মোঃ সোহাগ মাহমুদ বাপ্পী ওরফে রনি (৩১) নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে বগুড়া জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ডিবি। রনি গোপালগঞ্জের ছোট পারুলিয়া এলঅকার মোঃ সালঅউদ্দিন মোল্লার ছেলে।
জেলা গোয়েন্দা পুলিশ এর পক্ষথেকে জানানো হয়, “সাইবার পুলিশ বগুড়া’র” একটি চৌকস টিম গত ১৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যা অনুমান ৬ টায় ফরিদপুর জেলার কোতয়ালী থানাধীন রঘুনন্দনপুর এলাকা হতে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা পরিচয়ে অনলাইনে বিকাশ ও রকেটে লক্ষ-লক্ষ টাকা প্রতারনার মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়ায় অভিযোগে রনিকে গ্রেফতার করে। সে ফরিদপুরের রঘুনাথপুর এলাকায় একটি বাসায় ভাড়া থাকতো। গ্রেফতারকৃত আসামীর নিকট হতে প্রতারনার কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন কোম্পানীর ১১ টি মোবাইল সিমকার্ড সহ বিভিন্ন মডেলের ৭ টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে।
উদ্ধারকৃত সিমকার্ড গুলি বিভিন্ন পুলিশ সদস্যদের নাম ঠিকানা ব্যবহার করে ভূয়া রেজিষ্ট্রেশন করে নিজেকে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা (আলফা-১) পরিচয় দিয়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় কর্মরত পুলিশ সদস্যদের নিকট হতে প্রতারণার মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। ধৃত আসামী গত ২৮ অক্টোবর ২০১৯ অন্যান্য জেলার ন্যায় বগুড়া জেলার আলফা-১ পরিচয় দিয়ে পুলিশ লাইন্সে কর্মরত আরআই কে ফোন দিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। এ ঘটনায় বগুড়া সদর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে পুলিশ পরিচয়ে প্রতারণার মাধ্যমে অনলাইনে বিকাশ ও রকেটের মাধ্যমে লক্ষ-লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ায় অভিযোগে একাধিক মামলা রয়েছে।