নোতুন খবর.কম : বগুড়াকে সামনে এগিয়ে নিতে উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সাংবাদিকদের সহযোগিতা চাইলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক। তিনি বগুড়াবাসীর প্রানের দাবী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরবেন বলেও জানান। তিনি সোমবার দুপুরে বগুড়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন। সভায় বগুড়ার সন্তান শফিক বলেন, রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ছিলেন তিনি। ছাত্র রাজনীতির পর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রিয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক ছিলেন। আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলে তিনি সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন। তাকে সিলেট বিভাগের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ছাত্র রাজনীতিকালে একাধিকবার রাজশাহী ও ঢাকা কেন্দ্রিয় কারাগারে বন্দি ছিলেন তিনি। বিএনপি-জামায়াত শিবিরের সন্ত্রাসীদের হাতে একাধিকবার হামলার শিকার হয়েছিলেন। ঢাকা ও বগুড়ার রাজনীতিতে সবসময় সম্পৃক্ত থেকে বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হিসেবে তিনি কাজ করেছেন বলে অবগত করে তিনি বলেন, আধুনিক বগুড়া গড়তে সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। উন্নয়নের ধারা থেকে আমরা যেন পিছিয়ে না পড়ি। সকলের সহযোগিতায় উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহন ও বাস্তবায়নে পদক্ষেপ নেয়া হবে। বগুড়ায় বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ চলমান রয়েছে। অর্থনৈতিক জোনের কাজ চলছে, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় অনুমোদন হয়েছে। জেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাস্তাঘাট, ব্রীজ কালভার্ট, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সবক্ষেত্রেই উন্নয়ন হচ্ছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখা সহ বগুড়াকে আরো সামনে এগিয়ে নিতে সকলকে এক সাথে কাজ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা সুষম উন্নয়নে বিশ^াস করেন। সারাদেশে সর্বক্ষেত্রে সার্বিক উন্নয়ন হচ্ছে বলেই বগুড়া উন্নয়ন থেকে পিছিয়ে পড়েনি। বগুড়াসহ উত্তরাঞ্চলের সমস্যা ও সম্ভাবনা গণমাধ্যমে তুলে ধরে উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে হবে। উন্নয়ন এগিয়ে নিতে সাংবাদিকদের অগ্রণী ভুমিকা পালন করার আহবান জানান তিনি। প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহমুদুল আলম নয়নের সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য রাখেন স্বেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রিয় নেতা ম. আব্দুর রাজ্জাক, জেলা আ’লীগ নেতা আসাদুর রহমান দুলু, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আরিফ রেহমান, সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম বাবু, বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব জিএম সজল, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রেজাউল হাসান রানু, দৈনিক চাঁদনী বাজার সম্পাদক সুমনা রায়, বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি আমজাদ হোসেন মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক জেএম রউফ, সাংবাদিক বিমু রহমান, এইচ আলিম, সাজ্জাদ হোসেন পল্লব প্রমুখ। এসময় ক্লাবের সাবেক সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্য শংকর, সিনিয়র সাংবাদিক সমুদ্র হক, দৈনিক দুরন্ত সংবাদ সম্পাদক সবুর শাহ লোটাস, সাংবাদিক জিয়া শাহীন, ঠান্ডা আজাদ, আব্দুর রহমান টুলু, মোহন আখন্দ, শফিউল আজম কমল, নাজমুল হুদা নাসিম, আবুল কালাম আজাদ, নাছিমা সুলতানা ছুটু, সামছুল ইসলাম লিটন, সাজেদুর রহমান সিজু, ইলিয়াস হোসেন, তানসেন আলম, মেহেরুল সুজন, ফরহাদুজ্জামান শাহী, জেলা আ’লীগনেতা শেরিন আনোয়ার জর্জিস, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, হেফাজত আরা মিরা, মাহবুবুর রহমান আকাশ, বিলাসী রানী সরকার, তাকবীর আহম্মেদ, মিন্টু মিয়া।