নোতুন খবর.কম :
বগুড়ায় সাব্বির হোসেন (১৪) নামে এক ইজিবাইক চালকের মরদেহ উদ্ধার হরেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে শাজাহানপুর উপজেলার বীরগ্রাম এলাকার একটি ডোবা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত সাব্বির কাহালু উপজেলার জামগ্রাম জামাইপাড়া এলাকার গোলাম রব্বানীর ছেলে। সে স্থানীয় জামগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

নিহতের পরিবার জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে জামগ্রাম স্ট্যান্ড থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাটি নিয়ে বের হয় সাব্বির। রাতে সে বাড়ি ফিরে না আসায় স্বজনরা তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি করেও কোন সন্ধান পাননি। পরে তারা কাহালু থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

নিহতের নানা আজিজুল জানান, সাব্বিররা দুই ভাই। তাদের বাবা গোলাম রব্বানী একজন দরিদ্র কৃষক। স্কুল বন্ধ থাকায় সংসারের চাহিদা মেটাতে ছেলেদের ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা কিনে দেন গোলাম রব্বানী। ইজিবাইকটা দুইভাই মিলে মিশে চালাতো। মঙ্গলবার বিকেলে ইজিবাইকটি নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয় সাব্বির। এরপর সে আর বাড়ি ফিরেনি। পরে তার লাশ পাওয়া যায়।

পুলিশ জানায়, সাব্বিরের শরীরের নানা অংশে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তার নাক-মুখ আঘাত করে থেতলিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের ধারণা, গলায় রশি পেঁচিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে মরদেহ ফেলে পালিয়ে যায় দুর্বর্ত্তরা।

শাজাহানপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ছিনতাইকারীরা ইজিবাইক ছিনিয়ে নিয়ে ওই কিশোরকে গলায় রশি পেঁচিয়ে হত্যা করে মরদেহ ডোবায় ফেলে রেখে গেছে।খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।