নোতুন খবর.কম : ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক অটোরিকশার তিন যাত্রী নিহত হয়েছে। এঘটনায় অপর ৩জন যাত্রী আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ২জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। রোববার দুপুরে শেরপুর উপজেলার ধনকুন্ডি এলাকায় বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনায় আরও তিনজন আহত হয়েছেন।
নিহতরা হলেন, শেরপুর উপজেলার চকপাথারী গ্রামের আব্দুর হাই (৬১), আল আমিন (৩০) এবং ঘাসুরিয়া গ্রামের শাহসুলতান (৯)।
রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বগুড়া থেকে ঢাকাগামী একটি কোচ উল্লেখিত স্থানে চান্দাইকোনাগামী একটি যাত্রী বোঝাই অটোভ্যানকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই শেরপুর উপজেলার চকপাথাড়ী গ্রামের মরহুম মোংলা হাজীর পুত্র ভ্যানচালক আব্দুল হাই প্রাং (৬০), একই গ্রামের ভ্যানযাত্রী মৃত ইসহাকের পুত্র আল আমিন (৩২) ও ঘাসুরিয়া গ্রামের শাহ সুলতান (১০) নিহত হয়।
প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, ৬জন যাত্রী নিয়ে একটি ব্যাটারী চালিত অটোভ্যান চান্দাইকোনা দিকে যাচ্ছিলো। এ সময় ধনকুন্ডি পেন্টাগন হোটেল পার হয়ে আমতলা নামকস্থানে ঢাকাগামী একটি কোচ পিছন থেকে অটোভ্যানকে চাপা দেয়। এতে অটোভ্যানটি দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং তিনজন যাত্রী ঘটনাস্থলেই মারা যান। দুর্ঘটনার পরপরই ঢাকাগামী কোচটি পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে শেরপুর থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে হতাহতদের উদ্ধার করেন। আহত তিনজনকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
শেরপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার রতন হোসেন জানান, আহত তিনজনের মধ্যে এক নারীসহ ২জনের অবস্থা আশংকাজনক। অপর তিনজনের মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।