নোতুন কবর.কম ঃঃ
বগুড়ায় ছুরিকাঘাতে আহত জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রচার সম্পাদক রোকনুজ্জামান রনি (৩৩) বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার গভীর রাতে মারা গেছেন।
রনি বগুড়া শহরের মালগ্রাম এলাকার শাহাদত হোসেন সাজুর ছেলে।

জানা গেছে, গত ১৮ জুলাই সন্ধ্যার দিকে আবদুস সোবহান তার সহযোগীদের নিয়ে রনির বাড়ির সামনে এসে ফোনে ডেকে নেয়। এরপর বাড়ির সামনেই রনিকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। এ সময় রনির ভাগিনা রিফাতউজ্জামান ছন্দ এগিয়ে আসলে তাকেও ছুরিকাঘাত করা হয়। এরপর রক্তাক্ত অবস্থায় দুজনকেই মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে মালগ্রাম দিঘিরপাড় এলাকায় ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করে।
পরের দিন রনির বড় বোন শারমিন আকতার রুমা সদর থানায় সোবহান, নোমান, রাকিব সহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পুলিশ রাকিবকে গ্রেফতার করে।

রনির বড় বোন শারমিন আকতার রুমা জানান, গত রমজান মাসে তাদের মালগ্রামস্হ এলাকায় শহরের বাদুড়তলা থেকে এক ছেলের দুই বন্ধু বেড়াতে আসে। পাড়ায় আড্ডা দেয়া নিয়ে মালগ্রামের নোমান ও রাকিবের সাথে তাদের ঝগড়া হয়।

এনিয়ে সমঝোতা বৈঠকও হয় এলাকায়। কিন্ত সোবাহান নামের এক ব্যাক্তি তার মত করে বিচার করতে চায়। রনি সাড়া না দেয়ায় সোবাহান তার উপর ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠে ১৮ জুলাই রনি ও তার ভাগিনাকে বাড়ি থেকে ডেকে বের করে উপুর্যপরী ছুরিকাঘাত করে।

পরে রনিকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন ১৯ জুলাই নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ রাকিব নামের একজনকে গ্রেফতার করে।

সদর থানার ওসি হুমায়ুন কবির জানান, আগের মামলার সঙ্গে হত্যার ধারা যোগ হবে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।