নোতুন খবর.কম : বগুড়ায় তাঁতী লীগ কার্যনির্বাহি কমিটির পরিচিতি সভা ও অভিষেক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) সন্ধায় বগুড়া জেলা পরিষদ মিলনায়তনে এই সভার আয়োজন করা হয়।
এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা এস এম কামাল হোসেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সর্বশেষ স্টিলের কাঠামো (স্প্যান) বসানোর মাধ্যমে বহুল আলোচিত পদ্মা সেতুর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বড় কাজের সমাপ্তি হবে। ৪১তম স্প্যানের জোড়া লাগানোর মাধ্যমে পদ্মার দুই পাড়ও যুক্ত হয়ে যাবে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে শেখ হাসিনা অবিরাম পরিশ্রম করে যাাচ্ছেন।
তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুরের ভাস্কর্য নিয়ে কিছু মৌলবাদী দেশের মধ্যে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার পাঁয়তারা করছে। তাদের সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিতে সকল নেতাকর্মীদের একতাবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

যার নেতৃত্বে আমরা স্বাধীন দেশ পেয়েছি তিনি বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমরা সেই দলের কর্মি, যে দল পাকিস্তানের দু:শাষন, শোষন, নির্যাতন, সা¤প্রদায়িক রাজনীতির বিরুদ্ধে বাঙ্গালী জাতিকে বিশ্বের দরবারে স্বাধীন ভুখন্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছে। যারা এই দেশেকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে তাদের বিষদাঁত ভেঙ্গে দিয়ে বাংলাদেশে থেকে ঐসব চক্রান্তাকারীদের উচ্ছেদ করবো এই হক আজকের অঙ্গিকার।
জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান সোহেলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রাশেকুজ্জামান রাজনের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক একেএম আসাদুর রহমান দুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট জাকির হোসেন নবাব, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নাসরিন রহমান সীমা, উপ-প্রচার সম্পাদক মাফুজুল ইসলাম ভুইয়া রুমেল, সদস্য ম. আব্দুর রাজ্জাক, আলমগীর হোসেন স্বপন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গৌতম কুমার, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ খাদিজা খাতুন শেফালী, সাধারণ সম্পাদক নিগার সুলতানা ডরথি, জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈমুর রাজ্জাক তিতাস, সরকারি আজিজুল হক কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রউফ, জেলা তাঁতী লীগের সহ-সভাপতি নাজমুল হক সজীব, সাব্বির হোসেন, উজ্জল কুমার মন্ডল, মহিদুল ইসলাম, আলামিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান রাব্বি, আহসান হাবীব, আপেল মল্লিক, রাজু হোসেন, ইব্রাহীম সেলিম, প্রচার সম্পাদক আরিফুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুন, মাহমুদুল হাসান রনি, লুৎফর রহমান, মেহেদী হাসান কাজল, নান্নু সরকার, সদস্য ফেরদ্দৌস হাসান, মিবল রায়, শাহ আলম, কমল সরকার, সরকারি আজিজুর হক কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রউফ প্রমুখ।
অনুষ্ঠান শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে শহরের একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। বিক্ষোভ মিছিল শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।