নোতুন খবর.কম :
বগুড়ায় এক বালু ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে ৩ জনের মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বগুড়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নরেশ চন্দ্র সরকার মঙ্গলবার ওই মামলা রায় ঘোষণা করেন। হযরত আলী নামে সেই বালু ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে যাদের মৃতুদন্ডে দন্ডিত করা হয়েছে তারা হলেন-বগুড়া শহরের নিশিন্দারা উত্তরপাড়ার মৃত আব্দুল মজিদ প্রামাণিকের ছেলে মোঃ মারুফ রায়হান ওরফে মিলন (৩৮), বগুড়া সদরের বাঘোপাড়ার মহিদুল ইসলামের ছেলে মোঃ মানিক (২৫) ও শহরের নিশিন্দারা মধ্যপাড়া মাছুম মোল্লার ছেলে মোঃ সাঈদী (২৪)।রায়ে বিচারক দণ্ডিতদের প্রত্যককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করেন। তবে অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় বগুড়া পৌরসভার ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জহুরুল ইসলামসহ অপর ৫ আসামীকে খালাস দেওয়া হয়। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডিতরা আদালতে হাজির ছিলেন। পরে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়।বগুড়ার পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন জানান, প্রায় ৩ বছর আগে ২০১৭ সালের ১৬ এপ্রিল দুপুরে শহরের নিশিন্দারা এলাকায় স্থানীয় কাউন্সিলরের কার্যালয়ের সামনে বালু ব্যবসায়ী হযরত আলীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহত হযরত আলীর মা মোছাঃ মেরিনা খাতুন বাদী হয়ে দণ্ডিত ওই ৩ব্যক্তিসহ মোট ৮জনকে আসামী করে বগুড়া সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। প্রায় ৭ মাস তদন্ত শেষে পুলিশ ২০১৭ সালের ২১ নভেম্বর আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। তিনি বলেন,‘অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় পৌরসভার ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ চার্জশীটভুক্ত ৫ আসামীকে আদালত খালাস দিয়েছেন।’