নোতুন খবর. কম ঃ

বগুড়ায় নির্বাচনী ক্যাম্প ভাংচুরের মামলায় জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য এম আর ইসলাম স্বাধীন, শিবগন্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান বিএনপি নেত্রী বিউটি বেগমসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ৩৮ নেতাকর্মীর জামিন না মন্জুর করে জেল হজতে প্রেরন করা হয়েছে।
আজ বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আছমা আহাম্মেদ এই আদেশ প্রদান করেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২২ ডিসেম্বর বগুড়ার শিবগন্জ থানার চৌকির ঘাটে জাতীয় পার্টির নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় জাতীয় পার্টির কর্মী রাকিবুল হাসান বাদী হয়ে জেলা বিএনপি সদস্য এম আর স্বাধীন সহ ৪৪ জনের নাম উল্লেখ করে শিবগন্জ থানায় মামলা করে। ওই মামলায় উচ্চ আদালত থেকে আসামীরা জামিনে ছিল।

আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল বাছেদ জানান, ওই মামলায় পুলিশ ৩৮ জনের নামে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে। রোববার জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এমআর ইসলাম স্বাধীনসহ আসামিরা আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করেন। শুনানী শেষে বিচারক জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

এ ব্যাপারে বগুড়া জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক অ্যাডভোকেট একেএম সাইফুল ইসলাম বলেন, গায়েবী মামলায় জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠানো দুঃখজনক। কারণ আসামীরা উচ্চ আদালত থেকে এতদিন জামিনে ছিলেন।