নোতুন খবর.কম : বগুড়ার গোয়েন্দা পুলিশ মঙ্গলবার রাতভর অভিযান চালিয়ে বৃটিশ আমলের ধাতব মুদ্রা দেখিয়ে বিভিন্ন ভাবে মানুষের সাথে প্রতারনা করার অভিযোগে ধাতবমুদ্রা উদ্ধার ও ৯ জন প্রতারককে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতার কৃতরা হলো বগুড়া শহরের লতফিপুর কলোনী এলাকার মৃত আলিম উদ্দনি এর ছেলে মোঃ আজিজার রহমান (৫৫), শিবগঞ্জের সারদিঘী এলাকার মৃত দারাজ আলীর ছেলে মোঃ রুহুল আমনি (৫২), গাবতলীর তরফশ্বরতাজ এলাকার (এ/পি সাং ঠনঠনয়িা ব্যাংক পাড়া,সদর) মোঃ ছবদে আলীর ছেলে মোঃ আবু নাছরে (৪০) কে একটি ধাতব পর্দাথ সহ গ্রফেতার করে পরর্বতীতে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বগুড়া গাবতলী থানাধীন পদ্মপাড়া হতে আসামী শিবগঞ্জের নুরইল শিয়ালী গ্রামের মোঃ নবাব আলীর ছেলে মোঃ জহুরুল ইসলাম (৪০), সৈয়দপুর ভাটরা এলাকার মৃত রইচ উদ্দিনের ছেলে মোঃ সাইদুর রহমান (৫০), জয়পুরহাটের কালাই থানার বামনগ্রামের মেঅঃ ছবির আলীর ছেলে মোঃ বাছেদ আলী (৩৮), গাবতলীর পদ্নপাড়া এলাকার মৃত সাইফুল ইসলাম এর ছেলে মোঃ রোকনুদ্দিন (৫০), সদরের শহরদিঘী এলাকার মোঃ সমজান আলীর ছেলে মোঃ লিটন প্রাং (৩৫), শাজাহানপুরের জোড়ামালা এলাকার মোঃ নেছার উদ্দিনের ছেলে মোঃ গোলাম রব্বানী (৪০) কে আটক করে।
বগুড়া গোয়েন্দা পুলিশের ওসি আসলাম আলী জানান, তারা কথিত এই ধাতব মুদ্রাকে মূল্যবান মুদ্রা বলে ১০ থেকে এক লাখ টাকায় বিক্রি করে প্রতারনা করে আসছিল। তাদের মঙ্গলবার রাতে বিভিন্ন জায়গা থেকে মুদ্রাসহ গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে মোট ৫৭ টি কথিত ধাতব মুদ্রা উদ্ধার করে পুলিশ। আসামীদরে বরিুদ্ধে বগুড়া সদর থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে।