ডেস্ক : বগুড়ার চাঞ্চল্যকর পরিবহন ব্যবসায়ী ও বিএনপির নেতা অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীন হত্যা মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। চার্জশিটে সদর উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলামকে প্রধান আসামি করে ১৪ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

তদন্তকারী কর্মকর্তা শাজাহানপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমবার হোসেন শনিবার বিকালে বগুড়ার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছেন।

জানা গেছে, গত ২০১৯ সালের ১৪ এপ্রিল রাত ১০টার দিকে দুর্বৃত্তরা বগুড়ার নিশিন্দারা উপ-শহর বাজার এলাকায় সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও পরিবহন ব্যবসায়ী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীনকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। পরদিন নিহতের স্ত্রী আকতার জাহান বাদী হয়ে শিল্পী সদর থানায় যুবলীগ নেতা, পরিবহন ব্যবসায়ী ও বগুড়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র আমিনুল ইসলামসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর আমবার হোসেন জানান, আমিনুল ইসলামসহ ৫ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে আমিনুল ছাড়া অন্যরা আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তদন্তে আরও ৯ জনের সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়। তারা সবাই শহরতলির চারমাথা এলাকার পরিবহন শ্রমিক।

তিনি জানান, পরিবহন মালিক সমিতির দ্বন্দ্বের জের ধরে আমিনুল ইসলামের পরিকল্পনায় অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীকে হত্যা করা হয়।

এ মামলার ১৪ জন আসামির মধ্যে ৫ জন গ্রেফতার ও ৯ জন পলাতক রয়েছেন। সম্প্রতি আমিনুল ইসলামও উচ্চ আদালত থেকে জামিনে ছাড়া পেয়েছেন। এ ছাড়া এজাহারভুক্ত ৬ জনের মধ্যে মাহমুদ নামে একজনের সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার আবেদন করা হয়েছে।

বগুড়া কোর্ট ইন্সপেক্টর আবুল কালাম আজাদ চার্জশিট দাখিলের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।