নোতুন খবর.কম :
বগুড়ায় তালাক দেয়া স্ত্রী’র যৌতুক ও খুনের মিথ্যা মামলা সহ হয়রানীমূলক মামলা ও হুমকী থেকে পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বগুড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন সদরের ধাওয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল আজিজ।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, একই গ্রামে সাকা আকন্দের মেয়ে শাকিলা খাতুন এর সাথে তার বিয়ে হয়। এরপর ২০১১ সালে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে । এরপর থেকে শাকিলা খাতুন একই গ্রামে তার বাবার বাড়িতে অবস্থান করতে থাকেন। ২০১৫ সালে অজ্ঞাত কোন সন্ত্রাসীর হাতে খুন হন শাকিলা। এই হত্যাকান্ডের ঘটনায় সাবেক স্বামী আব্দুল আজিজের নামে হত্যার একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন তার বাবা সাকা আকন্দ। এ ছাড়াও বিভিন্ন সময় সাকা আকন্দ এবং তার পরিবার তার পরিবারকে গালিগালাজ হুমকি ধমকি এবং প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছেন । সাবেক স্ত্রী হত্যা মামলায় আদালতের জামিনে থাকা আব্দুল আজিজ অভিযোগ করে বলেন, চতুর সাকা আকন্দ এরপর আরও একটি মিথ্যা মামলা তাদের বিরুদ্ধে দায়ের করলে তা তদন্ত মিথ্যা প্রমাণিত হয়।
এই মামলার আপোষ করে অনৈতিক সুবিধা দাবি করে সাকা আকন্দের পরিবার বিভিন্ন সময় তার পরিবারকে হয়রানি করে আসছেন তিনি। এর প্রেক্ষিতে আজিজের মা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করলে বেপরোয়া হয়ে ওঠেন সাকা আকন্দ। ইতোপূর্বে তিনি আজিজের বাবা আব্দুল জলিলের গলায় গামছা পেঁচিয়ে তাকে হত্যার চেষ্টা চালান বলে অভিযোগ করেন আজিজ।
এ বিষয়ে তার পরিবারের নিরাপত্তার জন্য প্রশাসনের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সহায়তা কামনা করেন।
সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল আজিজের মা, পরিবারের সদস্য এবং স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।