বগুড়া
বগুড়া জেলা যুব মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার দুপুরে শহরের শহীদ টিটু মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে পুনরায় অ্যাডভোকেট লাইজিন আরা লিনাকে সভাপতি ও সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ডালিয়া নাসরিন রিক্তাকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে।
কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল সর্বসম্মতিতে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সহ-সভাপতি, যুগ্ম সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকের নাম ঘোষণা দেন। শিগগিরই পূর্ণাঙ্গ কমিটি করা হবে। সহ-সভাপতিরা হলেনÑবিলাসী রানী, মাকসুদা মলি, হাসিনা হাফিজ হিরা ও তমা ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক আফরোজা আকতার রিমা, সূচনা ফেরদৌস ও মনিরা আকতার কুমকুম এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হলেন আইভি আকতার নুপুর।
জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের পর শান্তির প্রতীক কবুতর ও বেলুন উড়িয়ে ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন উদ্বোধন করেন, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল। সংগঠনের জেলা সভাপতি অ্যাডভোকেট লাইজিন আরা লিনার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ডালিয়া নাসরিন রিক্তার সঞ্চালনায় সম্মেলনের প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু। অন্যান্যের মধ্যে কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগের সহ-সভাপতি কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি, সদস্য রেশমা সুমি, বগুড়া সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম দুলু, নন্দীগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল আশরাফ জিন্নাহ, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
অধ্যাপক অপু উকিল তার বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে যুব মহিলা লীগকে আরো সুসংগঠিত করতে হবে। তিনি আগামী ২-৩ মাসের মধ্যে বগুড়ায় যুব মহিলা লীগের উপজেলা, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড কমিটি পুন:গঠনের নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, বিশ্ব ব্যাংকের টাকায় পদ্মা সেতু হবার কথা ছিল। কিন্তু খালেদা জিয়া সেই অর্থায়ন বন্ধ করে দিয়েছিলেন। তারপরও শেখ হাসিনা দেশীয় অর্থে পদ্মা সেতুর কাজ করছেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিএনপি জামায়াত জোটের উন্নয়ন সহ্য হয়না তাই তারা গুজব ছড়াচ্ছে সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে। কিন্তু কোন অপপ্রচার বা গুজব পদ্মা সেতুর কাজে বিঘœ সৃষ্টি করতে পারবে না।