নোতুন খবর.কম : বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে জন্মের পর পরই চুরি হয়ে গেল নবজাতক পুত্রসন্তান। হাসপাতালের গাইনি বিভাগ থেকে শিশুটি বুধবার চুরি হয়। চুরি হওয়ার পর থেকে শিশুটির সন্ধান পাওয়া যায়নি।
জানাযায়, বগুড়ার কাহালু উপজেলার বেলঘড়িয়া গ্রামের সৌরভের স্ত্রী নাহিদা বেগম প্রসব বেদনা উঠলে মঙ্গলবার রাতে শজিমেক হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি হয়। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তাকে হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়। অপারেশন থিয়েটারেই নাহিদা স্বাভাবিকভাবে সন্তান প্রসব করেন। এরপর কর্তব্যরত নার্সরা ওই নবজাতককে নিয়ে অপারেশন থিয়েটারের বাইরে অপেক্ষমান নাহিদা বেগমের সঙ্গে আসা তার নানী শ্বাশুড়ি ওবেদা বেগমের কোলে দেন।
ওবেদা বেগম জানায়, অপরিচিত এক মহিলা শিশুটি অসুস্থ্য তাকে চিকিৎসা দিতে হবে বলে বাচ্চাটিকে নিজের কোলে নেয়। এসময় ওই মহিলঅ ওবেদাকে তার তার সঙ্গে যেতে বলে। পরে নিচতলায় নামার সময় ভিড়ের মধ্যে শিশুটিকে কোলেনিয়ে ওই মহিলা হারিয়ে যায়।
শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারি পরিচালক ডা. আব্দুল ওয়াদুদ জানান, ঘটনাটি আদৌ চুরি নাকি এটা কোন স্যাবোটাজ সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’
বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুল আজিজ মন্ডল জানান, শিশুটিকে পাওয়া যাচ্ছে না বলে খবর পাওয়া গেছে। এক মহিলা এসে বাচ্চাটি চিকিৎসা দেয়ার নাম করে নিয়ে যায়। শিশুটি উদ্ধারে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করা হচ্ছে।