নোতুন খবর.কম :
রবিবার বেলা ১২ টায় বগুড়া প্রেস ক্লাবে সংবাদ সন্মেলন করেন সদরের ৭ নং শেখেরকোলা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড সদস্য এমদাদুল হক। সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমি জনগনের ভোটে নির্বাচিত একজন ইউপি সদস্য ও ঠিকাদার। আমি ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে সুনামের সহিত ওয়ার্ডের দায়িত্ব পালন করে আসছি। গত ২১/১২/২০২০ ইং তারিখে জনৈক একজন সাংবাদিক সোসাল মিডিয়া তার ফেসবুক আইডি, দৈনিক পত্রিকা সহ বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পৌর্টালে গত ২০১৯ সালের ৭ ই ফেব্রুয়ারীতে বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে একজন নিহত হওয়ার ঘটনাতে আমাকে জড়ানো হয়েছিল। প্রকৃত পক্ষে সে ঘটনার সাথেও আমি জড়িত ছিলাম না। আমার মান ক্ষুন্ন ও সমাজে আমাকে হেয় করার লক্ষে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিনা অপরাধে ৯ মাস জেল হাজতে অবস্থান করতে হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, আমি কখনও বালু উত্তোলনের সাথে জড়িত ছিলাম না, বা বর্তমানেও নেই। ঐ স্বার্থন্বেষী মহলেরা আমার বিরুদ্ধে আরও অপপ্রচার ও বিভিন্ন প্রকার মিথ্যা প্রচারণা চালানোর চেষ্টা করছে বা চেষ্টা করবে । তারা শুধু এটা করেই ক্ষান্ত হয়নি ২৫/১২/২০ ইং তারিখে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মানব বন্ধন করে। এমনকি ঐ দিন রাতেই তারা পরিকল্পনা করে আমার ছবি দিয়ে বিভিন্ন গাছে ও বিদ্যুতের পোলে লাগানো আমার বাড়ীর পাশে এব্ং ৫নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন জায়গায় আগামী ২০২১ ইং শুভ নব বর্ষের শুভেচ্ছা সম্বলিত প্যানা দিয়ে লাগানো ঝুলন্ত সাইন বোর্ড তারা ছিড়ে ফেলে। তাদের মুখোশ একদিন সমাজে উন্মোচিত হবেই ইনশাল্লাহ।
আমাকে জড়িয়ে যারা আমার ও আমার পরিবারের সদস্যদের মান ক্ষুন্ন করছে তার আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করছি।
আমার এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ডে ইর্ষান্বিত হয়ে এবং সমাজে আমাকে আরও হেয় করার জন্য যারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তদন্ত করে তারা কি করে, কোথায যায়? এইসব জেনে তাদের বিরুদ্ধে সংবাদ পরিবেশন করে সমাজে তাদের মুখোশ উন্মুোচন এবং প্রশাসনিক ভাবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমি আহবান জনাচ্ছি।