নোতুন খবর.কম : বগুড়া সদরের সাবগ্রাম উত্তর চাউলিয়া পাড়ায় পারিবারিক বিরোধের জের ধরে বসত বাড়িতে হামলা ভাংচুর ও নারীসহ কয়েকজনকে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার সকালে ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসে।
সাবগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, আমার নিকট প্রতিবেশী এবং ভাগভাগির সাথে জায়গা জমির ভাগবাটোয়ারা নিয়ে পূর্বে মারামারি হয়। ভাগবাটোয়ারার বিষয়টি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। মামলায় আমার পরিবারও জড়িত। ভাগ ভাগির সাথে জায়গা জমির এই বিবাদের জের ধরে মঙ্গলবার আমাদের প্রতিপক্ষ ওই এলাকার কয়েকজন আমার বসত বাড়ির সামনে এসে আমার স্ত্রী মালেকা বেগম ও মেয়ে রুমানা খাতুনের উপর আক্রমন করে। এসময় তারা বাঁচার জন্য দৌড়ে বাড়ীর ভেতরে গেলে হামলা কারীরা সেখানে গিয়েই তাদেরকে মারপিট করে। এসময় তারা ঘড়ের ভেতরের ওয়ারড্রয়ারের তালা ভেঙ্গে তার ভেতর থেকে ৪ লাখ টাকা নিয়ে যায় ও বসতবাড়ীর গেট ভেঙ্গে ফেলে। খবর পেয়ে বাড়ী গিয়ে মা, স্ত্রী ও কন্যাকে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করি। এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।
নারুলী পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ জামিরুল ইসলাম জানান, জায়গা জমির ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে ওই পরিবারের লেঅকদের মধ্যে বিবাদ চলে আসছে। এঘটনার জের ধরেই আজ মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠাই। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসে। এবিষয়ে এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি।