নোতুন খবর.কম :
বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সাবেক এমপি মোঃ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু বলেছেন, গণতন্ত্র এখন মুমূর্ষু অবস্থায় আছে। বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের নামে নাটক করছে। হাসিনা সরকার রাতে আধারে ভোট চুরি, ভোট ছিনতাই করে ক্ষমতায় থাকার জন্য ১/১১ দোসরদের সাঙ্গে হাত মিলিয়ে ক্ষমতায় এসে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত¡াবধায়ক সরকার বাতিল করে। অতীতের সকল নির্বাচন বাতিল করে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে এবং একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। এটাই একমাত্র সমাধান।
একটা মানুষের লজ্জা শরম হায়া থাকে, এদের তাও নাই। তারা বলে নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। গণতন্ত্রের বাহন হলো নির্বাচন। নির্বাচন ছাড়া গণতন্ত্র হয় না। কিন্তু নির্বাচনকে তারা এতোই পরিত্যক্ত, অগ্রহণযোগ্য ও হেয় করে ফেলেছে। আমাদের নির্বাচন কমিশন বলে আওয়ামী লীগ জিতলেই নির্বাচন সুষ্ঠ!
সম্প্রতি অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদের উপ-নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে নির্বাচন বাতিল ও পুনরায় নির্বাচনের দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে সোমবার সকালে বগুড়া জেলা বিএনপির আয়োজিত দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল এর সভাপতিত্বে জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য কেএম খায়রুল বাশারের পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আসন্ন বগুড়া পৌরসভার বিএনপি মনোনিত মেয়র প্রার্থী জেলা বিএনপি সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, আলী আজগর তালুকদার হেনা, লাভলী রহমান, আহসানুল তৈয়ব জাকির, এম আর ইসলাম স্বাধীন, হামিদুল হক চৌধুরী হিরু, তৌহিদুল আলম মামুন, এনামুল কাদির এনাম, শেখ তাহা উদ্দিন নাইন, মাফতুন আহমেদ খান রুবেল।