ডেস্ক : বার্সেলোনার ক্রীড়া পরিচালক এরিক আবিদালের সঙ্গে লিওনেল মেসির দ্বন্দ্ব এখন স্প্যানিশ ফুটবলের ‘হট টপিক’। শোনা যাচ্ছে, এই দ্বন্দ্বের সুযোগ নিতে চাচ্ছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম সেরা ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি। বার্সেলোনা থেকে মেসিকে ভাগিয়ে নিতে চাইছে ইংলিশ ক্লাবটি।

লিওনেল মেসির ‘কিংবদন্তি’ হয়ে উঠা শুরু যার অধীনে সেই পেপ গার্দিওলা কয়েক মৌসুম ধরে ম্যানসিটির কোচের দায়িত্বে আছেন। ফলে অন্য ক্লাবগুলোর চেয়ে ম্যানসিটির পক্ষে মেসিকে রাজি করানোটা সহজই হবে।

এদিকে, আর্জেন্টিনা তারকার চুক্তির বিষয়টিও সিটিকে উদ্বুদ্ধ করছে। সর্বশেষ চুক্তিতে উল্লেখ আছে, মেসি চাইলে যেকোনো মৌসুম শেষে ফ্রি-তে ক্লাব ছাড়তে পারবেন।

সব মিলিয়ে আর্জেন্টিনা অধিনায়ককে দলে ভেড়াতে নাকি ভেতরে ভেতরে চেষ্টা শুরু করে দিয়েছে পেপ গার্দিওলার দল। অনেকে মনে করছেন, আবিদালের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে মেসি যেভাবে অসন্তোষ প্রকাশ করলেন তাতে আর তার বার্সা ছাড়ার ঘোষণা এলে সেটা মোটেও বিস্ময়কর হবে না। এদিকে, অনেক আগে থেকেই মেসির সঙ্গে নতুন চুক্তির বিষয়ে কথা বলছে বার্সেলোনা। কিন্তু ছয়বারের বিশ্বসেরা ফুটবলার বারবারই বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন।

মেসি-আবিদালের দ্বন্দ্ব মূলত এরনাস্তো ভালভার্দেকে নিয়ে। কিছু দিন আগে সাবেক হয়ে যাওয়া বার্সেলোনা কোচের সমালোচনা করতে গিয়ে খেলোয়াড়দেরও সমালোচনা করেন আবিদাল। ভালভার্দে কোচ থাকাকালীন কিছু ফুটবলার প্রত্যাশামতো পারফর্ম করেননি বলে মন্তব্য আবিদালের। ড্রেসিংরুমের পরিবেশ ভালো ছিল না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এই মন্তব্যের ঘণ্টা দেড়েক পর নিজের অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে ক্ষোভের বিস্ফোরণ ঘটান মেসি। ড্রেসিংরুমে ঝামেলা পাকানো এবং পারফর্ম না করা ফুটবলারদের নামের তালিকা প্রকাশ করতে বলেন মেসি। তা না করা হলে দলের সবাইকে কলঙ্কিত করা হয়েছে বলে যুক্তি দাঁড় করান আর্জেন্টাইন সুপারস্টার।