ডেস্ক :
বিশ্বকাপ বাছাই ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। পেরুর বিপক্ষে দুইবার পিছিয়ে পড়েও নেইমারের হ্যাটট্রিকে ম্যাচে ৪-২ গোলে জয় পেয়েছে ব্রাজিল। অপরদিকে বলিভিয়ার বিপক্ষেও শুরুতে গোল খেয়ে ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে আর্জেন্টিনা।

বুধবার লিমায় অনুষ্ঠিত ব্রাজিল-পেরুর ম্যাচে স্বাগতিক পেরুর বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর ষষ্ঠ মিনিটেই আন্দ্রে ক্যারিয়োর গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ২৮ মিনিটে পেনাল্টি থেকে করা নিজের প্রথম গোলে ম্যাচে সমতা আনেন নেইমার।
ম্যাচের ৫৯ মিনিটে ফের রেনাতো তাপিয়ার গোলে এগিয়ে যায় পেরু। ৬৪ মিনিটে ফের সেলেকাওদের সমতায় ফেরান রিচার্লিসন। ৮৩ মিনিটে ফের পেনাল্টি থেকে গোল করেন নেইমার। বর্ধিত সময়ের চতুর্থ মিনিটে নিজের হ্যাট্রিক পূর্ণ করেন তিনি।

এদিকে স্বাগিতক বলিভিয়ার মুখোমুখি হয় আর্জেন্টিনা। দেশটির রাজধানী লা পাজে খেলা যে কোনো অতিথি দলের জন্য কষ্টকর। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১২ হাজার ফিট ওপরে খেলা খুবই কঠিন। ম্যাচের ২৪ মিনিটে মার্সেলো মার্তিনেজের গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। তবে গোল হজমের পর ঘুরে দাঁড়ায় আলবিসেলেস্তেরা। বিরতির ঠিক আগে সৌভাগ্যের দেখা পায় আর্জেন্টিনা। বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে বলিভিয়ার হোসে কারাসকোর শট লতারো মার্তিনেজের পায়ে লেগে হয়ে যায় গোল। এতে ম্যাচে ফিরে সমতা।

বিরতির পর বেশ কয়েকবার ম্যাচের দখল নেয়ার চেষ্টা চালায় মেসির দল। ৭৪ মিনিটে লিওনেল মেসির দুর্দান্ত পাসে গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন লতারো মার্তিনেজ। তবে এর মিনিট চারেক পরই বলিভিয়ার ডিফেন্ডারের ভুলে বল চলে আসে মেসির পায়ে। এবার দারুণ সহযোগিতা করে বদলি হিসেবে নামা কোরেয়ার কাছে বল দেন মার্তিনেজ। তার বুলেট গতির শটে ৭৯ মিনিটের গোলেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা।