ডেস্ক : বিশ্বের গণতান্ত্রিক অবস্থানে ৮ ধাপ এগিয়েছে বংলাদেশের। প্রকাশিত প্রতিবেদনে বাংলাদেশের অবস্থান ৮০তম স্থানে। ২০১৮ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৮৮ তম। যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যম দ্যা ইকোনমিস্টের বিশেষায়িত সংস্থা দ্যা ইন্টিলিজেন্স উইনিট বিশ্বের ১৬৭ টি দেশের গণতান্ত্রিক অবস্থা নিয়ে ২০১৯ সালের এক রিপোর্ট প্রকাশ করে। বুধবার প্রকাশিত এ রিপোর্টে বাংলাশের গণতান্ত্রিক অবস্থান পূর্বের তুলনায় ৮ ধাপ এগিয়েছে। এবার ৫.৮৮ পয়েন্ট নিয়ে ৮০তম স্থানে অবস্থান করছে বাংলাদেশ যেখানে ২০১৮ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৮৮ তম। গত বছর বাংলাদেশের পয়েন্ট ছিল ৫.৫৭ এবং ২০১৭ সালে ছিল ৫.৪৩ পয়েন্ট।

তালিকায় প্রথম ৫টি দেশ হলো- ১. নরওয়ে ২. আইসল্যান্ড ৩. সুইডেন ৪. নিউজিল্যান্ড ও ৫. ফিনল্যান্ড।

অন্যদিকে তালিকায় সবার শেষে অবস্থান করা দেশগুলো হলো- ১. চাদ ২. সিরিয়া ৩. সেন্ট্রাল অফ্রিকান রিপাকলিক ৪. কংগো এবং ৫. উত্তর কোরিয়া।

তবে আশংকার বিষয় হলো গত ১৪ বছরের মধ্যে গত বছর বিশ্বে গণতান্ত্রিক অবস্থা সবচেয়ে সূচনীয় অবস্থায় ছিল। ১০ পয়েন্টের মধ্যে বিশ্ব গণতন্ত্রের সূচক ছিল ৫.৪৪ পয়েন্ট যা ২০০৬ সাল থেকে শুরু হওয়া এ রিপোর্টের মধ্যে সর্বনিন্ম সূচক। অন্যদিকে ২০১৮ সালেও তা কিছুটা বেশি ছিল যা ৫.৪৮ পয়েন্ট।

একটি দেশের ৫টি মানদন্ড ও ৬০ ধরনের সূচক বিবেচনা করে ১০ পয়েন্টের ভিত্তিতে ২০০৬ সাল থেকে এ তালিকা প্রকাশ করে আসছে দ্যা ইকোনমিস্ট। এ তালিকা তৈরী করার বিবেচ্য মানদন্ডগুলো হলো- নির্বাচন প্রক্রিয়া ও বহদলীয় গণতন্ত্র, সরকারের কার্যক্রম, রাজনৈতিক অংশগ্রহণ, গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক সংস্কৃতি ও নাগরিক স্বাধিনতা।

রিপোর্ট অনুযায়ি ১৬৭ দেশের মধ্যে মাত্র ২২ দেশে পূর্ণ গণতন্ত্র রয়েছে। অন্যদিকে বিশ্বের এক-তৃতিয়াংশ মানুষ একনায়কতন্ত্রের অধিনে বসবাস করছে। তালিকা অনুযায়ি চীনে গণতান্ত্রিক অবস্থার সবচেয়ে বেশি অবনতি হয়েছে। অন্যদিকে বিশ্বে সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রি রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত ভারতের অবস্থানে ধ্বংস নেমেছে। ৩.৩২ পয়েন্ট থেকে অবনমিত হয়ে এবারে ভারতের পয়েন্ট ২.২৬। ফলে তালিকায় দেশটি ৪১তম থেকে ৫১তম অবস্থানে চলে আসে। দক্ষিণ এশিয়ায় শ্রীলঙ্কা ৬.১৯ স্কোর নিয়ে গত বছর ৭১তম অবস্থানে থাকলেও এবার দেশটির দুই ধাপ অগ্রগতি হয়েছে। শ্রীলঙ্কা এ বছর ৬.২৭ স্কোর নিয়ে ৬৯তম অবস্থানে উঠে এসেছে। ৪ দশমিক ১৭ স্কোর নিয়ে পাকিস্তান গত বছর ১১২তম থাকলেও এবার ৪.২৫ স্কোর নিয়ে ১০৮তম অবস্থানে রয়েছে দেশটি।