ডেস্ক, ভারতের নাগাল্যান্ডে বিয়ের অনুষ্ঠানে সশস্ত্র ন্যাশনাল সোশালিস্ট কাউন্সিল অব নাগাল্যান্ড-ইউনিফিকেশনের (এনএসসিএন-ইউ) অন্যতম শীর্ষ নেতা বহতা কিবার ছেলে ও ছেলের নবপরিণীতা স্ত্রীর হাতে স্বয়ংক্রিয় একে৫৬ ও এম১৬ রাইফেল হাতে হাসিমুখে তোলা ছবি অনলাইনে ভাইরাল হয়েছে।শনিবারের ওই অনুষ্ঠানে আগ্নেয়াস্ত্রের এ প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে আসা অতিথিদেরও হকচকিয়ে দিয়েছিল বলে বিভিন্ন সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে এনডিটিভি।

এনডিটিভি বলছে, যখন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার দেশটির উত্তরপূর্বাঞ্চলের বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর সঙ্গে একটি শান্তিচুক্তি করার জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তখনই ন্যাশনাল সোশালিস্ট কাউন্সিল অব নাগাল্যান্ড-ইউনিফিকেশনের (এনএসসিএন-ইউ) অন্যতম শীর্ষ নেতা বহতা কিবার ছেলের অস্ত্র হাতে ছবি সামনে এল।ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে কিবার পুত্র ও পুত্রবধুকে হাতে স্বয়ংক্রিয় একে৫৬ ও এম১৬ রাইফেল হাতে হাসিমুখে পোজ দিতে দেখা গেছে।নাগা বিদ্রোহী নেতার ছেলের অস্ত্র হাতে ছবিটি দেখেননি বলে বার্তা সংস্থা আইএএনএসকে জানিয়েছেন নাগাল্যান্ডের পুলিশ প্রধান টি জন লংকুমের। “আমি এখনো ছবিটি দেখিনি; এ সম্পর্কে অবগতও নই,” বলেছেন তিনি।তাৎক্ষণিকভাবে কিবার পুত্র ও পুত্রবধুর নাম জানা যায়নি।
ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার নাগা বিদ্রোহীদের যৌথ নির্বাহী কমিটির সঙ্গে শান্তিচুক্তির আলোচনা করছে। সাতটি সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠীর এ কমিটি নাগা ন্যাশনাল পলিটিকাল গ্রুপের (এনএনপিজি) বহতা কিবার এনএসসিএন-ইউও আছে।সোশালিস্ট কাউন্সিল অক নাগালিম (ইসাক-মুইভা) ও মিয়ানমারভিত্তিক সোশালিস্ট কাউন্সিল অব নাগাল্যান্ড-খাপলাংয়ের দলছুট নেতারা ২০০৭ সালের ২৩ নভেম্বর সশস্ত্র এই গোষ্ঠীটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।নয়া দিল্লি ২২ বছর ধরে চলে আসা নাগা শান্তি আলোচনা চলতি বছরের ৩১ অক্টোবরের মধ্যে শেষ করার চেষ্টা করলেও পৃথক পতাকা ও সংবিধান নিয়ে মতবিরোধে কারণে তা সম্ভব হয়নি।