ডেস্ক : ভারতে সনাতন ধর্মালম্বীদের গ্রন্থ গীতা নিয়ে আয়োজিত কুইজ প্রতিযোগিতায় পাঁচ হাজারের বেশি প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে ‘চ্যাম্পিয়ন অব দ্য চ্যাম্পিয়ন’ হয়েছেন এক মুসলিম কিশোর। এর আগে মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরআন নিয়ে আয়োজিত প্রতিযোগিতায়ও পুরস্কার পেয়েছিল সে।

সম্প্রতি ভারতের জয়পুরে যৌথভাবে বার্ষিক গীতা কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে হরে কৃষ্ণ মিশন ও অক্ষয় পাত্র ফাউন্ডেশন। সেখানে সবাইকে অবাক করে দিয়ে সেরার পুরস্কার জিতে নেয় ১৬ বছরের মুসলিম কিশোর আবদুল কাগজি। তার স্তুতি গান ও শ্লোক শুনে রীতিমতো মুগ্ধ হয়ে গেছেন বিচারকরা।

ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, দুই ভাগে ছয়মাস ধরে চলা এ প্রতিযোগিতার মূল থিম ছিল ‘শ্রীকৃষ্ণকে জানো’। প্রতিযোগিতায় সংস্কৃত ভাষায় গীতা পাঠ করে প্রথম স্থান অধিকার করেন প্রতাপনগরের ডাকিং সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র আবদুল কাগজি। তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন রাজস্থানের পরিবহনমন্ত্রী প্রতাপ সিং কাছরিয়াওয়াস।

আবদুল কাগজি বলেন, নিজের মনকে অনুসরণ করার জন্য বাবা সবসময় বলে থাকেন। তিনি কোনো বিশ্বাস বা চর্চায় বাধা দেন না। তাই আধ্যাত্মবাদের বিভিন্ন ধারা নিয়ে পড়াশোনার সুযোগ পাই। এছাড়া ‘লিটল কৃষ্ণ’ নামে টিভিতে একটি কার্টুন সিরিজ দেখে শ্রীকৃষ্ণের প্রতি আগ্রহ বাড়ে। আর মথুরা নাথের লেখা ‘কৃষ্ণ’ বই পড়ে গীতা পাঠ শেখা হয়।

জানা যায়, প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বের কুইজ অনুষ্ঠিত হয় গত সেপ্টেম্বরে। সেখান থেকে লিখিত পরীক্ষার জন্য উত্তীর্ণ হয় ৫০টি স্কুলের শিক্ষার্থী। পরে তাদের মধ্য থেকে প্রায় ৬০ জনকে চূড়ান্ত পর্বের সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকা হয়।

হরে কৃষ্ণ মিশনের হেড অব কালচারাল এডুকেশন সার্ভিসেস স্বামী সিদ্ধ স্বরূপ দাসা বলেন, এর আগেও শ্রীকৃষ্ণকে নিয়ে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও হরে কৃষ্ণ মিশনের অন্য দুটি প্রতিযোগিতায় কিশোরটি অংশ নিয়েছিল।