শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়া শাজাহানপুরের পোয়ালগাছা মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

আলী ইমাম ইনোকী নামে ওই বিদ্যালয়ের আজীবন দাতা সদস্য গত রবিবার মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড রাজশাহীর চেয়ারম্যান/বিদ্যালয় পরিদর্শক বরাবর এই অভিযোগ দায়ের করেন।

আলী ইমাম ইনোকী বলেন, তিনি পোয়ালগাছা মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের আজীবন দাতা সদস্য। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামরুজ্জামান অতি গোপনে একতরফা ভাবে ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য নির্বাচন সম্পন্ন দেখিয়ে গত ২২ জানুয়ারী সভাপতি নির্বাচন করেছেন।

নিয়ম অনুযায়ী পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে একজন দাতা সদস্য থাকবেন। কোন প্রতিষ্ঠানে একাধিক দাতা সদস্য থাকলে তাদের মধ্যে সবার সম্মতিক্রমে অথবা নির্বাচনের মাধ্যমে একজন দাতা সদস্য নির্বাচন করে তাকে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে রাখতে হবে। কিন্তু বিদ্যালয়ের দুই জন দাতা সদস্য থাকা সত্তেও তাকে কোন কিছু না জানিয়ে প্রধান শিক্ষক একটি স্বার্থন্নেষী মহলের সাথে যোগসাজসে অপর দাতা সদস্য মাসুুদুর রহমান মিঠুকে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে দাতা সদস্য রেখেছেন। যেটা প্রশ্নবিদ্ধ হওয়া সহ বেআইনী ও প্রচলিত নিয়মনীতির পরিপন্থি। বিষয়টি ওইদিনই প্রিজাইডিং অফিসার উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আব্দুল আলিমকে মোবাইল ফোনে জানানোর পরও তিনি তা কর্ণপাত করেননি। এতে করে প্রামানিত হয় প্রিজাইডিং অফিসার আব্দুল আলিমও স্বার্থেন্নেস্বী মহলের সাথে যোগসাজসে অর্থনৈতিক সুবিধা নিয়েছেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামরুজ্জামান জানান, যেহেতু আলী ইমাম ইনোকী শিক্ষা বোর্ডে অভিযোগ করেছেন সেহেতু বোর্ড যে নির্দেশনা দেবেন সেটাই মেনে নেয়া হবে। এখানে আর কিছু বলার নেই।

প্রিজাইডিং অফিসার উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আব্দুল আলিম জানান, প্রবিধান অনুযায়ী নিয়মতান্ত্রিক ভাবেই কমিটি গঠন সম্পন্ন করা হয়েছে এবং নির্বাচন পরবর্তি সকল কার্যাদি সম্পন্ন হয়েছে। এসময় আলী ইমাম ইনোকী নামে কোন ব্যক্তি তাকে মোবাইল ফোনে অভিযোগ জানানোর বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি তা কৌশলে এড়িয়ে যান।