নোতুন খবর.কম : সারাদেশে শিশু ধর্ষণ, হত্যা ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে বগুড়ায় মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকালে শহরের সাতমাথায় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আলোকিত বগুড়ার উদ্যোগে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধন চলাকালে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আলোকিত বগুড়ার চেয়ারম্যান এ্যাড. ফেরদৌসী আক্তার রুনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন নামুজা ডিগ্রি কলেজের সহকারি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা ঠান্ডু, বগুড়া পৌরসভার ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ খোরশেদ আলম, সংগঠনের উপদেষ্টা দৈনিক বগুড়ার বার্তা সম্পাদক বাদল চৌধুরী, চীফ রিপোর্টার সৈয়দ ফজলে রাব্বী ডলার, চীফ ফটো সাংবাদিক মমিনুর রশীদ তালুকদার সাইন, রেজাউল বারী দিপন, সাবেক কাউন্সিলর টিপু সুলতান, বাবু বসুধা, রফিকুল ইসলাম, হেলাল উদ্দিন প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তাগণ বলেন, দেশে শিশু ধর্ষণ, হত্যা ও নারী নির্যাতন আশঙ্কাজনক হারে বেড়েগেছে। সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে শিশু ধর্ষণ ও হত্যা সাধারণ জনগণকে নাড়া দিয়েছে। প্রকাশ্যে খুন , আগুনে পুড়িয়ে হত্যা, শিশুকে ধর্ষনের পর হত্যার ঘটনায় মানুষের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তাছাড়া অনেক ধর্ষণের ঘটনাই প্রশাসনের নজরে আসছে না। এ ভাবে চলতে থাকলে সাধারণ মানুষের শিশু সন্তানরা আর ঘরের বাইরে বের হতে পারবে না। পরাধীনতার শিকল থেকে বেরিয়ে আসতে এবং দেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়েই এদেশ স্বাধীন হয়েছিল। দেশের ৩০ লাখ মানুষ তাদের বুকের তাজা রক্ত ঢেলেদিয়ে এবং প্রায় দুই লক্ষাধিক মা-বোন এর ইজ্জতের বিনিময়ে আমরা লাল সবুজের পতাকা ও একটি স্বাধীন ভূ-খন্ড পেয়েছি। সেই স্বাধীনতার উদ্দেশ্য আজ মলিন হতে চলেছে। আমরা হত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন, ও দুর্নীতিমুক্ত একটি বাংলাদেশ চাই। ধর্ষণকারিদের দ্রæত বিচার আইনের আওতায় এনে বিচার করা হোক। যাতে এসব বিচার দেখে আর কোন পাষন্ড এসব কাজ করতে ভয় পায়। তাছাড়া প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ধর্ষণের বিচার ১৮০ দিনের মধ্যে সম্পন্ন করার বাস্তবায়ন দেখতে চাই।
সভাপতির বক্তব্যে এ্যাড.ফেরদৌসী আক্তার রুনা বলেন, আমরা হত্যা,নির্যাতন ধর্ষণ দেখতে চাইনা। দেশের মানুষ যেন নিরাপদে পথ চলতে পারে শান্তিতে থাকতে পারে তার বাস্তবায়ন চাই। আলোকিত বগুড়া সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। অসহায় মানুষদের সেবা প্রদানের লক্ষ্য নিয়েই আলোকিত বগুড়ার জন্ম হয়েছে। তিনি অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে সকলের প্রতি আহবান জানান।