নোতুন খবর.কম :
বগুড়া জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত স্বাধীন বাংলার মহান স্থপতি, বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ভাস্কর্য অবমাননা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে বিক্ষোভ মিছিলটি বগুড়া শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সাতমাথায় মুজিব মঞ্চে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ভিপি সাজেদুর রহমান সাহীন এর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মোঃ জুলফিকার রহমান শান্ত’র সঞ্চালনায় সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মজিবর রহমান মজনু।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, ইতিহাসের মিমাংসিত বিষয় নিয়ে একটি উগ্র মৌলবাদী গোষ্ঠী দেশব্যাপী ধর্মীয় বিভেদ তৈরীর অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে। ৭১’র পরাজিত শক্তি আবার মাথা চারা দেওয়ার চেষ্টা করছে তারা বার বার ধর্মীয় অনুভূতিকে কাজে লাগিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। যার জন্ম না হলে এই স্বাধীন সার্বভৌমত্ব পেতাম না, যার জন্ম না হলে লাল সবুজের পতাকা পেতাম না, যার জন্ম না হলে আমরা বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারতাম না সেই মহান নেতা, বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, স্বাধীন বাংলার মহান স্থপতি, বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ভাস্কর্যকেই আঘাত করেনি তারা বাংলাদেশকে আঘাত করেছে। তিনি আরো বলেন, পৃথিবীর প্রায় সকল দেশে ভাস্কর্য রয়েছে। এই ভাস্কর্য সেই দেশের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে বহন করে। অনেক বারাবারি করেছেন, এখন থামুন, আর বারাবারি করেন না। যদি করেন, তাহলে আমরা আর ঘরে বসে থাকবো না। উগ্র সাম্প্রাদায়িক মৌলবাদী গোষ্ঠীর সকল ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দেওয়ার জন্য স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা-কর্মীরা প্রস্তুত।
প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু।
বিশেষ অতিথি বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগ এর যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এ কে এম আসাদুর রহমান দুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডঃ জাকির হোসেন নবাব, জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশিষ পোদ্দার লিটন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস।
সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, আবু জাফর সিদ্দিকী রিপন, প্রভাষক মনিরুজ্জামান মনির, গোলাম হোসেন, মোহাম্মদ আলী সিদ্দিক, মহিদুল ইসলাম, নাজমুল কাদির শিপন, বনি ছদর খুররম, ওবাইদুল হক প্রিন্স, রেজাউল করিম রিয়াদ, নুরুন্নবী সরকার, আরিফুল হক বাপ্পী, মশিউর রহমান মামুন, মীর জোবায়ের জয়, হযরত আলী, আব্দুল ওয়াদুদ পাপ্পু, খালেকুন্নাহার পলি, রশ্মি স্বর্ণা, সুলতান মাহমুদ প্রিন্স, ইমরান হোসেন রাজু, জাকিউল ইসলাম লিচু, শাহিন আলম, মাসুদ রানা, মামুনুর রশিদ, প্রভাষক মামুন, প্রভাষক রাজু, মিনহাজুল ইসলাম, রাশেদ ইসলাম, আব্দুল হাকিম, সোহানুল ইসলাম, নাসিমুল বারী নাসিম, আতাউর রহমান, আতা, মশিউর রহমান মন্টি, মোঃ লিটন শেখ, মোঃ নুরুজ্জামান, সুলতান মন্ডল সজল, সাইফুল ইসলাম, মানিক, সহ জেলা শাখা, পৌর শাখা ও উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।