ডেস্ক :
১২ হাজার ৬৩৮টি হীরার টুকরা দিয়ে বানানো হয়েছে আংটি। এটা করে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে নাম লিখিয়েছেন তো বটেই, হইচই ফেলে দিয়েছেন সারা পৃথিবীতে। আংটিটির নাম দিয়েছেন ‘মেরিগোল্ড দ্য রিং অব প্রসপারিটি’।
এই অসাধ্য সাধন করেছেন ভারতের উত্তরপ্রদেশের কারিগর হরিশ বনসল।

হরিশ বনসলের এই আংটি নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রখ্যাত সংবাদমাধ্যম সিএনএন। সেখানে বলা হয়েছে, তিন বছরের সাধনায় এই আংটি বানিয়েছেন ২৫ বছর বয়সী কারিগর হরিশ, যাতে ব্যবহার করা হয়েছে ১২ হাজার ৬৩৮টি হীরার টুকরা। প্রথমে পরিকল্পনা ছিল আংটিটিতে ১০ হাজার হীরা বসাবেন, এরপর দীর্ঘ চেষ্টা আর অভিনিবেশে শেষ পর্যন্ত সাড়ে ১২ হাজারেরও বেশি হীরা বসালেন। ‘মেরিগোল্ড দ্য রিং অব প্রসপারিটি’র ওজন দাঁড়িয়েছে ১৬৫ গ্রাম। এমন আংটির কথা জানাজানি হওয়ায় অনেকেই কেনার আগ্রহ দেখিয়েছেন। ‘যত টাকা লাগুক’ আংটিটি কিনবেন, এমন কথাও জানিয়েছেন অনেকে। কিন্তু হরিশ এই আংটি ছাড়বেন না। তার ভাষ্য, ‘এটা আমার দীর্ঘ সাধনার ফল। এই রেকর্ড কেউ ভাঙতে পারবে বলে মনে হয় না। তাই এটা হাতছাড়া করতে চাই না আমি।’

হরিশের আগে দীর্ঘদিন এমন রেকর্ড ছিল আরেক ভারতীয় গহনা প্রস্তুতকারকের দখলে। শ্রীকান্ত নামে হায়দ্রাবাদের ওই কারিগর একটি আংটি বানিয়েছেন ৭ হাজার ৮০১ টুকরা হীরা দিয়ে।