নোতুন খবর.কম :
বগুড়া জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশীষ পোদ্দার লিটন বলেছেন, ১০ নভেম্বর বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৮৭ সালের এই দিনে যুবলীগ নেতা নূর হোসেনের রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল ঢাকার রাজপথ। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে অগণিত মানুষের রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা। বাংলাদেশের মাটিতে নূর হোসেনের মতো সাহসী মানুষ যতদিন বেঁচে থাকবে, এদেশের গণতন্ত্র ততদিন বাধাগ্রস্ত হবে না।
তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে গনতন্ত্র সুসংহত হয়েছে। সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। একটি মহল দেশের গনতান্ত্রিক ব্যবস্থা নসাৎ করতে চক্রান্ত করে যাচ্ছে। তারা দেশ ও জাতির কল্যাণ চায় না। এদের বিরুদ্ধে দেশপ্রেমিক যুবসমাজকে রাজপথে গনপ্রতিরোধ গড়তে হবে।

১০ নভেম্বর মঙ্গলবার সন্ধায় শহীদ নুর হোসেন দিবসে দলীয় কার্যালয়ে শহর যুবলীগের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি কথাগুলো বলেন।
শহর যুবলীগের সভাপতি মাফুজুল আলম জয়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক উদয় কুমার বর্মনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম ডাবলু।
এতে বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব শেখ, অধ্যাপক নাছিরুজ্জামান টিটো মাইসুল তোফায়েল কোয়েল, শরিফুল আলম শিপুল, সাজেদুর রহমান সিজু, এমরান হোসেন মিথুন, বাপ্পি কুমার চৌধুরী, রাশেদুজ্জামান রাসেল, ফজলে রাব্বি মিথুন, নাসিরুদ্দিন নান্নু, কাওছার হামিদ রুবেল, শেখ এজাজুল হক ডনেল, তানভীর হাবিব খান শাওন, শ্রাবণ আবেদীন সনি, মতিন আলী প্রামানিক, মোশাররফ হোসেন বুলবুল, জাকারিয়া আদিল, রবিউল ইসলাম লিটন, আনন্দ কুমার দাস, আছাদুজ্জামান স্বপন, আতিকুল হক, বাপ্পি মন্ডল ।