ডেস্ক :
৬ মাস আগে মারা যাওয়া চিকিৎসকরাও পাচ্ছেন পদায়ন। নতুন করে পদায়ন পাওয়া এমন দুই চিকিৎসককের মধ্যে রয়েছেন বগুড়া সরকারি মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ও অপর জনকে করা হয়েছে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

এরমধ্যে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে পদায়ন করা চিকিৎসক ডা. জীবেশ কুমার প্রামাণিক করোনায় আক্রান্ত হয়ে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ঢাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে মারা যান। তিনি বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ছিলেন।
আর রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. ফেরদৌস আরা শেখ নামের একজন মৃত চিকিৎসককে প্রজ্ঞাপন জারি করে পদায়ন করা হয়েছে। অথচ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে তিনি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য স্থানীয় মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে সদ্য পদায়ন করা হয়েছে ৪৩ চিকিৎসককে। এরমধ্যে অন্য ৪২ জনের মতো ডা. জীবেশ কুমার প্রামাণিককেও আগামী ৭ জুলাইয়ের মধ্যে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে যোগদান করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের (পার-১ শাখা) উপ-সচিব জাকিয়া পারভীনের স্বাক্ষরে গত ৫ জুলাই জারি করা এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনে ডা. জীবেশ কুমার প্রামাণিকের নাম ১৫ নম্বরে রয়েছে।
বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. এ টি এম নুরুজ্জামান সঞ্চয়ের মতে, ডা. জীবেশ কুমার প্রামাণিকের করোনায় মারা যাওয়ার তথ্য হয়তো কোনো কারণে মন্ত্রণালয়ে পৌঁছায়নি। সে কারণেই এমনটা ঘটে থাকতে পারে।

বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. এ টি এম নুরুজ্জামান সঞ্চয় জানান, মন্ত্রণালয় থেকে যে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে তাতে বগুড়া ইন্সটিটিউট অব হেলথ টেকনোলজিতে (আইএইচটি) কর্মরত ২ চিকিৎসক এবং বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে কর্মরত ৪১ চিকিৎসকসহ মোট ৪৩ জনকে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে পদায়ন করা হয়েছে। তাদের ৭ জুলাইয়ের মধ্যে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
তিনি বলেন, ডা. জীবেশ কুমার প্রামাণিকের করোনায় মারা যাওয়ার তথ্য হয়তো কোনো কারণে মন্ত্রণালয়ে পৌঁছায়নি। সে কারণেই এমনটা ঘটে থাকতে পারে। ‘তার মৃত্যু সংক্রান্ত তথ্যটি আমরা মন্ত্রণালয়কে অবহিত করব।’

এদিকে,
মহামারী কোভিড-১৯ মোকাবেলায় জনসেবা নিশ্চিতে রংপুর মেডিকেল কলেজের ৬৫ জন চিকিৎসককে রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পদায়ন করা হয়েছে। তার মধ্যে মৃত ডা. ফেরদৌস আরা শেখ এর নাম তিন নাম্বারেও রয়েছে।

গত রবিবার (৪ জুলাই) রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব সারমিন সুলতানা এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেন। প্রজ্ঞাপনে বলা হয় বুধবারের (৭ জুলাই) মধ্যে পদায়নকৃতদের নতুন কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে অন্যথায় তাদের অবমুক্ত করা হবে।

রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. একেএম নুরুন্নবী লাইজু সাংবাদিকদের জানান, ওই চিকিৎসক ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। আমরা বিষয়টি স্বাস্থ্যবিভাগকেও জানিয়েছি তবে এটি অনিচ্ছাকৃত ভুল হতে পারে।